১৯ নভেম্বর ২০১৯

রোহিঙ্গাসহ লক্ষাধিক শিশু ও বয়স্কের দৃষ্টিশক্তি ফিরিয়ে দিয়েছে অরবিস : ডা: রর ওয়াল্টরস্

-

বাংলাদেশে রোহিঙ্গা আশ্রয়প্রার্থীসহ কক্সাবাজারের স্থানীয় প্রায় এক লাখ ১০ হাজার ৭০০ শিশু ও প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের চোখ পরীক্ষা করার পাশাপাশি প্রায় এক হাজার ৭০০ রোগীর চোখের অপারেশন করে দৃষ্টিশক্তি ফিরিয়ে দিয়েছে অরবিস। এ ছাড়া প্রায় ১৫ হাজার রোগীকে প্রয়োজনীয় ওষুধ এবং প্রায় আট হাজার শিশু ও প্রাপ্তবয়স্ক রোগীকে চশমা প্রদান করা হয়। প্রশিক্ষণের মাধ্যমে প্রায় ৭১৭ জন স্বাস্থ্যকর্মীর প্রাথমিক চক্ষু চিকিৎসা সম্পর্কে দক্ষতা বৃদ্ধি করা হয়েছে।
গত ১৫ অক্টোবর সকালে চট্টগ্রাম বিভাগের কক্সবাজার জেলার উখিয়ায় রোহিঙ্গা শরণার্থী ক্যাম্পে আয়োজিত অনুষ্ঠানে অরবিস যুক্তরাষ্ট্রের ট্রাস্টি ডা: রর ওয়াল্টরস্ এ কথা বলেন।
অরবিসের সফররত দলটি তিন দিনব্যাপী উখিয়া ও টেকনাফ উপজেলার শরণার্থী ক্যাম্পে চিকিৎসাকার্যক্রম পরিদর্শন শেষে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। কাতার ফান্ড ফর ডেভেলপমেন্টের আর্থিক সহায়তায় অরবিস ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ ‘কাতার ক্রিয়েটিং ভিশন (কিউসিভি) এক্সপান্ডিং আই কেয়ার ইন সাউথ ইস্ট বাংলাদেশ’ প্রকল্পটি রোহিঙ্গা আশ্রয়প্রার্থী ও কক্সবাজার জেলার স্থানীয়দের জরুরি চক্ষু চিকিৎসা প্রদানসহ চোখের চিকিৎসায় প্রয়োজনীয় সুযোগ-সুবিধা প্রদানের কার্যক্রম পরিচালনা করছে।
উখিয়া ক্যাম্পে অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন অরবিস যুক্তরাষ্ট্রের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রেবেকা ক্রনিন ও কমিউনিকেশনস্ ম্যানেজার নাতাশা লী।
বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর ডা: মুনীর আহমেদ বলেন, কক্সবাজারের জনগণের চক্ষু চিকিৎসা প্রদানে উখিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চক্ষু চিকিৎসা কেন্দ্র স্থাপনের মাধ্যমে চোখের প্রয়োজনীয় চিকিৎসাসেবা নিশ্চিতকরণসহ কক্সবাজার বায়তুশ শরফ হাসপাতালে শিশুবান্ধব চক্ষু চিকিৎসা কেন্দ্র চালু হয়েছে। বক্তব্য রাখেন, ডিরেক্টর অব প্রোগ্রামস মোহাম্মদ আলাউদ্দিন, সিনিয়র প্রোগ্রাম ম্যানেজার মো: ইকবাল হোসেন, কক্সবাজার বায়তুশ শরফ হাসপাতালের যুগ্ম সচিব এস এম কামাল উদ্দীন হোসেন।


আরো সংবাদ