১২ ডিসেম্বর ২০১৯

চট্টগ্রামে ব্যবসাবাণিজ্য ও বিনিয়োগ সুবিধা সম্পর্কে বহির্বিশ্বকে অবগত করতে হবে

-

চট্টগ্রামস্থ রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) পরিচালক কংকন চাকমা বিজিএমইএ নেতৃবৃন্দের সাথে গত সোমবার খুলশীস্থ বিজিএমইএ আঞ্চলিক কার্যালয়ে এক সৌজন্য সাক্ষাতে মিলিত হয়েছেন। এ সময় বিজিএমইএর প্রথম সহসভাপতি মোহাম্মদ আবদুস সালাম চট্টগ্রামে ব্যবসা-বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সুবিধার তথ্যাবলি বিদেশে বিভিন্ন ফোরামে যথাযথভাবে উপস্থাপন করার জন্য ইপিবির প্রতি আহ্বান জানান। তিনি বলেন, কাস্টমস ও বন্দর সুবিধা থাকায় চট্টগ্রাম থেকে রফতানি করলে ২ থেকে ৩ শতাংশ ব্যয় কম হয়। তৈরি পোশাক রফতানি প্রক্রিয়ায় ইপিবি, কাস্টমস, বন্দরসহ সব প্রতিষ্ঠানের সহযোগিতার জন্য ধন্যবাদ জানান। বহির্বিশ্বে তৈরী পোশাকসহ অন্যান্য পণ্যের বাজার সৃষ্টি ও রফতানি বৃদ্ধিতে ইপিবিকে কার্যকর ভূমিকা পালন করবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
ইপিবির পরিচালক কংকন চাকমা বলেন, নানা সীমাবদ্ধতা থাকা সত্ত্বেও তার প্রতিষ্ঠান তৈরী পোশাকসহ অন্যান্য রফতানি পণ্যের বাজার সৃষ্টিতে কাজ করে যাচ্ছে। রফতানিকারকদের প্রয়োজনে সব রকম সুযোগ-সুবিধা নিরলসভাবে দেয়া হচ্ছে। তিনি বিদেশে পণ্য বাজার সৃষ্টির লক্ষ্যে আন্তর্জাতিক মেলাগুলোয় রফতানিকারকদের অংশগ্রহণের ওপর গুরুত্বারোপ করেন পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের তথ্যাবলি ওয়েব সাইটে প্রদানের পরামর্শ দেন। আরো বক্তব্য রাখেন বিজিএমইএর সহসভাপতি এ এম চৌধুরী সেলিম, পরিচালক এ এম মাহাবুব চৌধুরী ও এনামুল আজিজ চৌধুরী।


আরো সংবাদ