২১ অক্টোবর ২০১৯
পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সুপারিশ

‘রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে থাইল্যান্ডের অভিজ্ঞতা কাজে লাগান’

‘রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে থাইল্যান্ডের অভিজ্ঞতা কাজে লাগান’ - ছবি : সংগৃহীত

থাইল্যান্ডের প্রত্যাবাসন কার্যক্রমের অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন কার্যক্রম ত্বরান্বিত করার সুপারিশ করেছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণাল সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। মঙ্গলবার কমিটির এক বৈঠকে এই সুপারিশ করা হয়। মিয়ানমার থেকে বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের অগ্রগতি ও মিয়ানমারের সর্বশেষ অবস্থান নিয়ে আলোচনার পর এই সুপারিশ করা হয়।

কমিটির সভাপতি মুহাম্মদ ফারুক খানের সভাপতিত্বে সংসদ ভবনে বৈঠকে কমিটির সদস্য ও পররাষ্ট্র মন্ত্রী এ.কে. আব্দুল মোমেন, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মোঃ শাহরিয়ার আলম, মোঃ আব্দুল মজিদ খান, মোঃ হাবিবে মিল্লাত, নাহিম রাজ্জাক, কাজী নাবিল আহমেদ এবং নিজাম উদ্দিন জলিল (জন) অংশগ্রহণ করেন।

বৈঠকে দেশের ভাবমর্যাদা রক্ষায় এবং নিরীহ মানুষকে রক্ষায় জন্য অবৈধ মানব পাচারে জড়িত বাংলাদেশী দালাল চক্রের বিরুদ্ধে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করা হয়।

বৈঠকে যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, ভিয়েতনাম, থাইল্যান্ড, জার্মানী ও যুক্তরাজ্যেসহ বিভিন্ন দূতাবাসে বাংলাদেশী নাগরিক বিশেষ করে সিনিয়র নাগরিকদের জন্য ভিসা পাওয়ার বিষয়টি সহজতর করার প্রক্রিয়া অব্যাহত রাখার পাশাপাশি যারা সঠিক ভিসা প্রার্থী তারা যাতে হয়রানির শিকার না হন সেজন্য পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে তাদের কার্যক্রম অব্যাহত রাখার সুপারিশ করা হয়।
বৈঠকে সরকারীভাবে বিদেশে প্রশিক্ষণে জন্য উপযুক্ত কর্মকর্তা নির্বাচন এবং এ বিষয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে যাতে অবহিত রাখা হয় সেজন্য বিষয়টি কেবিনেট ডিভিশনকে অবহিত করনের মাধ্যমে নির্দেশনা গ্রহণের লক্ষ্যে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে বিষয়টি কেবিনেট ডিভিশনে উত্থাপনের সুপারিশ করা হয়।

বৈঠকে বিদেশে অবৈধভাবে অবস্থানরত বাংলাদেশীদের দেশে ফেরত আনার ক্ষেত্রে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় যাতে কার্যকরী ভূমিকা পালন করে সেজন্য মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখার সুপারিশ করা হয়।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মোঃ শহীদুল হক, মেরিটাইম এফেয়ার্স ইউনিটের সচিব খোরশেদ আলম, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।


আরো সংবাদ