২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০

শাহবাগে আন্দোলনকারীদের গুলি করতে গিয়ে গণপিটুনির শিকার ব্যবসায়ী

গুলি করতে গিয়ে গণপিটুনির শিকার ব্যবসায়ী - ছবি : নয়া দিগন্ত

রাজধানীর শাহবাগে সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন পিছানোর দাবিতে আন্দোলন চলাকালে রাস্তায় গাড়ি চলাচলে বাধা দেয়ায় এক ব্যক্তি রিভলবার দিয়ে আন্দোলনকারীদের ওপর গুলি চালানোর চেষ্টা করতে গিয়ে পিটুনির শিকার হয়েছেন।

গণপিটুনির শিকার ব্যবসায়ী আলিফ রুশদিকে (৪৫) পুলিশ উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করিয়েছে। পুলিশ তার লাইসেন্সকৃত রিভলবার ও ৭ রাউন্ড গুলি জব্দ করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার বিকাল পৌনে ৩ টার দিকে। আহত ব্যবসায়ী আলিফ মতিঝিলে গোল্ড অ্যান্ড ট্রাভেলস নামে জনশক্তি রফতানিকারক একটি প্রতিষ্ঠানের সত্বাধিকারী।

শাহবাগ থানার ওসি আবুল হাসান জানান, নির্বাচন পিছানোর দাবিতে শাহবাগ মোড় অবরোধ করে সমাবেশ করছিল আন্দোলনকারীরা। বিকাল পৌণে ৩ টার দিকে প্রাইভেটকারে মতিঝিল অফিসে যাবার পথে শাহবাগ মোড়ে আন্দোলনকারীদের বাধার মুখে পড়েন ব্যবসায়ী আলিফ।

এসময় গাড়িতে ছিলেন তার স্ত্রী নামিরা ও ভাগ্নি নাজিপা সিদ্দিকা। আলিফ গাড়ি থেকে নেমে আন্দোলনকারীদের কাছে গাড়িটি ছেড়ে দেয়ার অনুরোধ করেন। এসময় আন্দোলনকারীদের সঙ্গে তার কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে আলিফ উত্তেজিত হয়ে তার কাছে থাকা লাইসেন্সকৃত রিভলবার বের করে গুলি করতে উদ্যত হন। এসময় বিক্ষুব্ধ আন্দোলনকারীরা তাকে আটক করে গণপিটুনি দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে থানায় নিয়ে আসে।

ওসি আরো জানান, আলিফের বাড়ি কাঁঠালবাগানের ৬৯/ও, ফ্রি স্কুল স্ট্রিটে। তার বিরুদ্ধে লাইসেন্সকৃত আগ্নেয়াস্ত্র অপব্যবহারের অভিযোগ আনা হবে কি না-এমন প্রশ্নের জবাবে ওসি বলেন, বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তাকে আপাতত আটক দেখানো হচ্ছে।


আরো সংবাদ