২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯

বন্ধু মহলের বন্ধুরা

-

ভালো কাজের দৃষ্টান্ত স্থাপনে বন্ধু মহলের সব বন্ধু প্রয়োজনের মুহূর্তে সাধ্যমতো সমাজের অবহেলিত মানুষের জন্য সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন তাদের সৃজনশীল কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে। হাতে হাত রেখে সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে চলেছেন বন্ধু মহলের সদস্যরা। ভ্রাতৃত্বপ্রতিমে সংগঠনের সবার মধ্যে আত্তিক সম্পর্ক গড়ে উঠেছে। বন্ধু মহলের বন্ধুরা নিজ নিজ ক্ষেত্রে প্রত্যেকেই কর্র্মব্যস্ততার মধ্যে সময় অতিবাহিত করলেও ভালো কাজে একে অপরকে হাত বাড়িয়ে দিয়ে যেন আগামীর সম্ভাবনার পথকে প্রসারিত করতে। স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন হিসেবে অবহেলিত ও সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পাশে থেকে প্রতিনিয়ত তাদের কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাচ্ছেন। আগামী দিনগুলোতে একই প্লাটফর্মে থেকে সৃজনশীল কাজের সাথে সম্পৃক্ত থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন বন্ধু মহলের সব সদস্য।
বন্ধু ভাবাপন্ন মন নিয়ে একসাথে পথচলার শুরু তাদের। চলার পথে বন্ধুত্বের বন্ধনকে অটুট রেখে সমাজের উন্নয়ন করা যায় সেই চিন্তাচেতনা থেকে কয়েকজন বন্ধু মিলে ২০১৪ সালে ঢাকা জেলার দোহার উপজেলার বিভিন্ন এলাকার প্রায় ৪০ জন সদস্য বন্ধু মহল নাম দিয়ে একটি সামাজিক উন্নয়নমূলক সংগঠনের যাত্রা শুরু করে। নামের সাথে কর্মকাণ্ডের মিল রেখে পথচলার গতিশীলতাকে ক্রমেই বৃদ্ধি করে অগ্রগতির পথে এগিয়ে যাচ্ছেন। এক পা, দু-পা করে ইতোমধ্যেই সংগঠনটি ছয় বছর অতিক্রম করেছে। এরই মধ্যে সামাজিক উন্নয়নমূলক কাজের অংশ হিসেবে বন্ধু মহল শীতবস্ত্র বিতরণ, গাছের চারা রোপণ, ইফতার সামগ্রী বিতরণ, শিক্ষাবৃত্তি, ঈদবস্ত্র বিতরণ, চিকিৎসাসেবা, ফ্রি চিকিৎসা ক্যাম্প ও আনন্দ ভ্রমণ ইত্যাদি কার্যক্রম সম্পন্ন করেছে। সংগঠনের বন্ধুদের মধ্যে বয়সের পার্থক্য থাকলেও ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে একে অপরের প্রতি আস্থা, পারস্পরিক বিশ্বাস, সহিষ্ণুতা, শ্রদ্ধাবোধ ও ভালোবাসার কোনো ঘাটতি নেই। যে কারণে সংগঠনের নাম দিয়েই কেটে গেছে বেশ কয়েকটি বছর। বর্তমানে সংগঠনটি কার্যনির্বাহী কমিটি ছাড়াই বেশ ভালোভাবেই কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। তবে সংগঠনের সদস্যরা জানান, সংগঠনের গতিশীলতা আনয়ন ও কর্মকাণ্ডকে আরো বিস্তৃত করতে শিগগিরই একটি কমিটি করা হবে। আর সেটি হবে খোলামেলা আলাপ আলোচনার মাধ্যমে। কোনো কমিটি ছাড়াই কার্যক্রম চলছে। সংগঠনের একমাত্র উদ্দেশ্য পরোপকারে নিজেকে উৎসর্গ করা। আর সেই কাজটি সহজতর করতে তাদের একত্র হওয়া। সৃজনশীল কর্মকাণ্ডের কারণে এলাকার সবার প্রশংসা কুড়িয়েছে। জীবন চলার পথে বন্ধু অপরিহার্য। ভালো বন্ধু একজন ভালো অভিভাবকের মতোই। এই সংগঠনের সদস্যরা কেউ ব্যবসায়ী, কেউ চাকরিজীবী আবার কেউ শিক্ষকতার পেশায় রয়েছেন। তার পরও সবার ঐকমত্যের ভিত্তিতে পরিচালিত হয়ে আসছে কর্মকাণ্ড। সময়ের ব্যবধানে প্রাণের টানে একসাথে মিলিত হয়ে কাজ করছে।
সংগঠনটির অন্যতম সদস্য শিমুল সিকদার জানান, সংগঠনের সব সদস্যের সাথে আমাদের আন্তরিকতার কোনো অভাব নেই। এ কারণে আমরা যেকোনো ধরনের উদ্যোগ নিলে তা সহজেই বাস্তবায়ন করা সম্ভব। সংগঠনের সবাই এগিয়ে আসে নিজের তাগিদে। আরেক সদস্য সারাফাত প্রত্যয় জানান, আমরা কর্র্মব্যস্ততার মধ্যে থেকেও যতটুকু সময় পাই তা ভালো কাজে ব্যয় করার চেষ্টা করি। ভালো চিন্তাচেতনার ফসল প্রাণের সংগঠন বন্ধু মহল। শুরু থেকে বন্ধুরা যেভাবে পাশে থেকে সহযোগিতা করে আসছে ভবিষ্যতে আমরা সেবার হাত আরো বাড়িয়ে দিতে পারব। বন্ধু মহলের সদস্যরা হলেন বিলাস সিকদার, জুয়েল দেওয়ান, রাজিব মল্লিক, জুয়েল খান, ইমরান হোসেন, তাইব খন্দকার, দেওয়ান সবুজ, সানোয়ার, মো: জুয়েল, শেখ হাসান, রাজীব, সজীব, ইকবাল, হারু, সেলিম দেওয়ান, ফয়সাল, নাজমুল, রিংকু, নজরুল ইসলাম নাজমুল, হিজবুল্লাহ আহমেদ, রাজীব মোল্লা, মো: রুবেল, মো: ওয়াসিম, সুমন, রশিদ, আমজাদ, মাহবুব, ঝন্টু হোসেন, তারেক, লিটন, রনি, ইকবাল, অ্যাডভোকেট হাসান, হাফেজ, সোরমান, শামীম হোসেন, পলাশ, মিজান প্রমুখ।

 


আরো সংবাদ

রোগীকে মেয়াদ উত্তীর্ণ স্যালইন পুশ,  সিভিল সার্জন অবরুদ্ধ শাবি ভিসির বিরুদ্ধে বেনামে শ্বেতপত্র প্রকাশ, ৫৩ অভিযোগ প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে অভিযান চলছে : পলক নতুন নেতৃত্বে ঢাবিতে ছাত্রদলের মিছিল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারে বিচার বিভাগীয় কর্মকর্তাদের প্রতি নির্দেশনা জারি টানা ৮দিন অনশনের পর প্রেমিক-প্রেমিকার বিয়ে ঝুড়ি দিয়ে মেপে চলে টাকার লেনদেন বিয়ের দাবিতে ৩ দিন ধরে প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান গৃহবধূর অশ্লীল ভিডিওধারণ করে চাঁদা দাবি, গ্রেফতার ৩ বিয়ের প্রলোভনে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণ চালকের, ব্যবহৃত মাইক্রো আটক মেসি ফিরলেও ভাগ্য ফিরেনি বার্সার

সকল