২৪ জানুয়ারি ২০২০

ঢাকা শহরে ৫টি পয়ঃশোধনাগার নির্মাণ করা হবে : স্থানীয় সরকারমন্ত্রী

-

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেছেন, রাজধানীর পয়ঃবর্জ্য সঠিক উপায়ে নিষ্কাশনের জন্য ৫টি পয়ঃশোধনাগার নির্মাণ করা হবে। ইতোমধ্যে ৩ হাজার ৩১৮ কোটি টাকা ব্যয়ে দাশেরকান্দি পয়ঃশোধনাগার প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। শিগগিরই পাগলা, রায়েরবাজার, উত্তরা ও মিরপুরে আরো ৪টি পয়ঃশোধনাগার নির্মাণ করা হবে।

বুধবার সকালে রাজধানীর রামপুরা ব্রিজ সংলগ্ন পয়:লিফটিং স্টেশন এবং আফতাবনগরে পূর্ব প্রান্তে নির্মাণাধীন দাশেরকান্দি পয়:শোধনাগার প্রকল্প এলাকা পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন। এসময় স্থানীয় সরকার বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. জহিরুল ইসলাম, ঢাকা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক তাকসিম এ খান প্রমুখ।

স্থানীয় সরকারমন্ত্রী বলেন, সঠিক উপায়ে সুয়ারেজ ব্যবস্থাপনা না করলে ভবিষ্যতে ঢাকা শহর পরিবেশ ও নদী দূষণে অযোগ্য হয়ে যাবে। এ প্রকল্প চালু হলে পয়:বর্জ্য এখানে এনে পুড়ে ফেলা হবে এবং তরল পরিশোধিত বর্জ্য খালের মাধ্যমে নিষ্কাশন করা হবে। এর ফলে নদী ও পরিবেশ দূষণ কমে আসবে।

সরকারের উন্নয়ন ও ভালো কাজগুলো মানুষের কাছে তুলে ধরতে গণমাধ্যমের প্রতি আহ্বান জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, আমাদের ভালো কাজ মানুষের কাছে নিয়ে যেতে হবে। তারা যদি উন্নয়ন দেখে সরকারকে সমর্থন করে, তাদের মানসিক সমর্থন আমাদের উৎসাহ যোগাবে। জনগণের মানসিক সমর্থন খুবই গুরুত্বপুর্ণ। তিনি বলেন, কীভাবে ঢাকা শহরকে দৃষ্টিনন্দন করা যায়, আমরা তার মহাপরিকল্পনা হাতে নিয়েছি। এই অপরিকল্পিত শহরকে দূষণমুক্ত করা কঠিন কাজ। তারপরও মহাপরিকল্পনা তৈরি করে সমন্বয় করে উন্নয়ন কাজ করা হবে।

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালে শুরু হওয়া দাশেরকান্দি পয়ঃশোধনাগার প্রকল্প ২০২২ সালে সম্পন্ন হওয়ার কথা রয়েছে। এ প্রকল্পে চীনের এক্সিম ব্যাংক ঋণ সহায়তা দেবে ২ হাজার ১৮৪ কোটি টাকা এবং বাংলাদেশ সরকার ও ঢাকা ওয়াসার আর্থিক বরাদ্দ ১ হাজার ১৩৪ কোটি টাকা।

 

 


আরো সংবাদ