১৫ নভেম্বর ২০১৯

বিচারক স্ত্রীকে ছুটিতে পাঠালেন তিউনিসিয়ার নতুন প্রেসিডেন্ট

প্রেসিডেন্ট কায়েস সাঈদ
প্রেসিডেন্ট কায়েস সাঈদ - ছবি : সংগৃহীত

তিউনিসিয়ার নতুন প্রেসিডেন্ট কায়েস সাঈদ তার বিচারক স্ত্রীকে পাঁচ বছরের জন্য ছুটিতে যেতে বলেছেন।
তিনি বলেছেন, দেশের বিচার বিভাগের স্বাধীনতা রক্ষায় তিনি এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এবং তার স্ত্রী যত দিন ছুটিতে থাকবেন তত দিন তাকে কোনো বেতনভাতা দেয়া হবে না। কায়েস সাঈদ জানিয়েছেন, তিনি পাঁচ বছরের জন্য প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন। এ সময়টায় বিচার বিভাগে তার স্ত্রীর উপস্থিতির কারণে ওই বিভাগের স্বাধীনতা নিয়ে কোনো প্রশ্ন উঠুক তিনি তা চান না।

গত বুধবার আইনের অবসরপ্রাপ্ত প্রফেসর কায়েস সাঈদ তিউনিসিয়ার প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিয়েছেন। তিউনিসিয়ার পার্লামেন্টে এ শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে গত ১৩ অক্টোবর দ্বিতীয় দফার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে ৭২ দশমিক ৭১ শতাংশ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন তিউনিস বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক এ অধ্যাপক। তার প্রতিদ্বন্দ্বী নাবিল কারুয়ি পেয়েছেন ২৭ দশমিক ২৯ শতাংশ ভোট।

শপথ নেয়ার পরই প্রেসিডেন্ট কায়েস সাঈদ দুর্নীতির বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান ঘোষণা করেছেন। স্ত্রীকে বিচার বিভাগের বাইরে রাখার সিদ্ধান্তও তারই অংশ বলে মনে করা হচ্ছে।

সূত্র : রয়টার্স 


আরো সংবাদ

আগুন নেভাতে সাহসী ভূমিকা রাখা ১৬ ব্যক্তিকে সংবর্ধনা দিলো হোটেল কস্তুরি ঘুষ সন্ত্রাস মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত থাকবে বাংলাদেশ-নেপাল যোগাযোগ ও বাণিজ্য বাড়ানোর পরামর্শ রাষ্ট্রপতির মেহেদির রঙ মুছতে না মুছতেই... সর্বদা আল্লাহর জিকিরে থাকতে হবে : আল্লামা শফী খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা অত্যন্ত খারাপ, তাকে জামিনে মুক্তি দিন রোহিঙ্গা নিপীড়নের অভিযোগ তদন্তের আদেশ দিয়েছে আন্তর্জাতিক আদালত ৩০ বছর পর সগিরা হত্যার রহস্য উদঘাটন : চার আসামি গ্রেফতার ট্রেন দুর্ঘটনার পেছনে কোনো ষড়যন্ত্র থাকলে সরকার খতিয়ে দেখবে : প্রধানমন্ত্রী অর্থমন্ত্রীর পরিবারের আয়কর ৭ কোটি ৬ লাখ ৭৮ হাজার টাকা না’গঞ্জে আদালত চত্বরে বাদি ও আসামিপক্ষের মারামারি

সকল