২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০

অনাহার-অপুষ্টিতে হাড় জিরজিরে দশা পশুরাজ সিংহের

কেউ শুয়ে রয়েছে। আবার কেউ বা খাঁচার পাশে বসে রয়েছে। সকলের হাড় জিরেজিরে দশা। আচমকাই পিছন দিক থেকে নজর পড়লে মনে হতে পারে কোনও রোগা চেহারার কুকুর শুয়ে রয়েছে। কিন্তু মুখের দিক থেকে তাকালেই ভেঙে যাবে ভুল। বুঝতে পারছেন যা দেখছিলেন আর যা ভাবছেন, তার মধ্যে আকাশ পাতাল তফাৎ। কারণ, হাড় জিরজিরে চেহারা নিয়ে যারা শুয়ে কিংবা বসে রয়েছে তারা সিংহ। দীর্ঘদিন অপুষ্টিতে ভোগার ফলে এমনই দশা সুদানের এক পার্কে থাকা পাঁচটি পশুরাজের।

সুদানের রাজধানী খার্তুমের আল-কুরেশি পার্কে বন্দি সিংহ-সিংহী মিলিয়ে মোট পাঁচটি প্রাণী। সংবাদ সংস্থা এএফপি’র এক সাংবাদিক ওই পার্কে গিয়েছিলেন। সেখানে গিয়েই দুর্বল সিংহগুলো নজরে আসে তার। হাতে ক্যামেরা ছিল সেই সময়। তাই সিংহের ছবি ফ্রেমবন্দি করতে এতটুকু সময় নষ্ট করেননি ওই সাংবাদিক।

ওসমান সালিহ নামে এক ব্যক্তি ওই ছবি শেয়ার করেন। ছবিতে ধরা পড়েছে পাঁচটি আফ্রিকান সিংহের করুণ দশা। যারা একদিন পার্কে আসা পর্যটকদের মনোরঞ্জন করত। তারাই এখন খাবারের অভাবে কেউ দাঁড়াতে পারে। তো কেউ সেই ক্ষমতাও হারিয়ে ফেলেছে।

পার্ক কর্তৃপক্ষের দাবি, খাবারের অভাবে তাদের প্রায় দুই-তৃতীয়াংশ ওজন কমেছে। সুদানের আর্থিক অবস্থা এখন খুবই খারাপ। সাধারণ মানুষ হাজার জীবন সংগ্রামের পরেও দু’বেলা দু’মুঠো খেতে পায় না। সেখানে সিংহদের করুণ দশার ছবি অবাক করে না পার্ক কর্তৃপক্ষকে।

তবে ওসমান সালিহর টুইট যন্ত্রণা দিচ্ছে পশুপ্রেমীদের। তিনি টুইটারে ওই ছবি পোস্ট করে দেশটির প্রধানমন্ত্রীর কাছে অপুষ্টিজনিত কারণে অসুস্থ সিংহদের জন্য খাবারের ব্যবস্থা করার আরজি জানিয়েছেন। পশুপ্রেমীরা চাইছেন, যেকোনও উপায়ে ওই সিংহদের খাবারের বন্দোবস্ত করা হোক। সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন।


আরো সংবাদ