১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯

ঈদের ছুটিতে বিনোদন কেন্দ্রে দর্শনার্থীদের ভিড়

-

ঈদের ছুটি আর ফাঁকা রাজধানীতে প্রিয়জনের সাথে আনন্দ ভাগ করে নিতে বিনোদন কেন্দ্রগুলোয় ভিড় জমিয়েছিল নগরীর বিনোদনপিয়াসীরা। ঈদের দিন ব্যস্ততার কারণে বাইরে বের হতে না পারলেও দ্বিতীয় দিন থেকে বিনোদন কেন্দ্রগুলোয় চোখে পড়েছে হাজারো মানুষের ভিড়।
ঈদের দিন দুপুর গড়িয়ে বিকেল হওয়ার সাথে সাথে ভিড় বেড়েছে হাতিরঝিলে। হাতিরঝিল এলাকাজুড়েই ছিল প্রচুর লোকসমাগম। খোলামেলা পরিবেশ আর মুক্ত বাতাস নিতে অনেকেই ছুটে আসেন নগরীর এই অন্যতম খোলা স্থানে। এ ছাড়াও ভিড় ছিল সোহরাওয়ার্দী উদ্যান, টিএসসি, রমনা পার্ক, বেইলি রোড, মানিক মিয়া এভিনিউ, ধানমন্ডি লেক, মিরপুর চিড়িয়াখানাসহ অন্যান্য বিনোদন কেন্দ্রে নতুন পোশাকে শিশু-কিশোর, তরুণ-তরুণী, নারী-পুরুষ ঘুরে ঘুরে কাটিয়েছেন ঈদের ছুটির দিনগুলো।
শাহবাগের শিশুপার্ক বন্ধ থাকায় আগারগাঁও শিশুমেলায় ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো। সকাল থেকেই এই শিশু বিনোদন কেন্দ্রে ছিল প্রচুর শিশুর সমাগম। নগরীর বিভিন্ন এলাকা থেকে এসেছেন তারা। প্রায় সব রাইডের সামনেই ছিল দীর্ঘ সারি। মহাখালী থেকে বাবার সাথে ঘুরতে এসেছে অনিক ও অন্তু দুই ভাইবোন। বাবা মিরাজ রহমানের হাত ধরে লাইনে অপেক্ষা করছে তারা। লাইনে অপেক্ষা করতে হলেও রাইডে না চড়ে যাবে না বলে জানিয়েছে অনিক ও অন্তু।
সববয়সী দর্শনার্থীদের আগমন ছিল লালবাগ কেল্লায়। অন্য যেকোনো সময়ের তুলনায় অতিরিক্ত চাপ সামলে নিতে প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছিল বলে জানিয়েছেন লালবাগ কেল্লার কাস্টোরিয়ান সুলতানা জাকিয়া বেদুড়া। তিনি বলেন, ঈদের মতো ছুটির দিনগুলোয় দর্শনার্থীদের চাপ বেশি থাকে। অতিরিক্ত চাপ সামলাতে অতিরিক্ত লোকবল নিয়োজিত করা হয়েছিল।
শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের প্রধান ফটকের সামনে দেখা গেছে সাধারণের ভিড়। ফটকের সামনে অপেক্ষারত মাহমুদুল হাসান জানালেন, এমনই সময় করে পরিবার নিয়ে ঘুরতে আসার সময় পাই না। ঈদের ছুটিতে তাই সবাইকে নিয়ে জাদুঘর দেখতে এসেছি। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব নভোথিয়েটারের ঈদের পরে দর্শনার্থীদের ভিড় ছিল।
ঢাকার অন্যসব বিনোদনের জায়গার মতো মিরপুর চিড়িয়াখানায় ঈদের ছুটিতে নেমেছিল মানুষের ঢল। নাগরিক জীবনের কোলাহল ছেড়ে হাজার হাজার মানুষ যেন একটু স্বস্তি নিতেই এসেছিল চিড়িয়াখানায়। গত শনিবার রাজধানীর মিরপুরে জাতীয় চিড়িয়াখানায় গিয়ে এমন দৃশ্য দেখা যায়। ঘুরতে আসা অনেকের সাথে কথা হয়।
রাজধানীর বনশ্রী থেকে পরিবারসহ ঘুরতে এসেছিল হানিফ সরদার। দুই মেয়ে, এক ছেলে ও স্ত্রীকে ঘুরে দেখাচ্ছিলেন বিভিন্ন পশুপাখি। হানিফ সরদার বলেন, ঈদের পরে পরিবারের সবাইকে নিয়ে ঘুরতে এসেছি। খুব ভালো লাগছে। ঈদে গ্রামে যেতে না পারায় মনটা খারাপই ছিল। এখানে এসে কিছুটা হলেও ভালো লাগছে।


আরো সংবাদ