২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

বিক্ষোভকারীদের শান্ত থাকার আহ্বান হাইতির প্রেসিডেন্টের

-

হাইতির প্রেসিডেন্ট জোভেনেল মোইজে তার বৈধতার কথা পুনরুল্লেখ করে বুধবার রাতে টেলিভিশনে এক ভাষণে বিক্ষোভকারীদের শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন। খবর বার্তা সংস্থা এএফপি’র।

ধর্মঘট ও সপ্তাহান্তে প্রেসিডেন্টের পদত্যাগের দাবিতে রক্তক্ষয়ী বিক্ষোভের পর তিনি এই আহ্বান জানান।

বুধবার ওই ধর্মঘটে সাড়া দিয়ে হাইতির অধিকাংশ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও অফিস বন্ধ ছিল।

এর আগে প্রেসিডেন্টের পদত্যাগের দাবিতে সহিংস বিক্ষোভ ও মোইজে জনসাধারণের সামনে না আসায় দেশটিতে অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছিল।

আমেরিকা মহাদেশের সবচেয়ে দরিদ্র দেশ হাইতি। দেশটির অধিবাসীরা এখনো একটি প্রলয়ঙ্করী ভূমিকম্প ও এক বছর আগের কলেরার প্রাদুর্ভাব কাটিয়ে উঠতে পারেনি। পাশাপাশি রাজনৈতিক অস্থিরতা তো আছেই।

মোইজে বলেন, ‘আমার পাঁচ বছরের শাসনামলে, একজন, আমি আবারো জোর দিয়ে বলছি একজন ব্যক্তিও দেশের স্বার্থকে ঝুঁকির মধ্যে ফেলতে পারেনি।’

তিনি ২০১৭ সাল থেকে দেশটির প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

সপ্তাহান্তে বিক্ষোভ শুরুর পর থেকে প্রথমবারের মতো জনসম্মুখে দেয়া ভাষণে মোইজে বলেন, সমাজের সকল স্তরের মানুষকে সাথে নিয়েই আলোচনা করতে হবে। গণতন্ত্রের সংজ্ঞা অনুযায়ী, সংবিধান অনুযায়ী দেশের আইনের প্রতি সম্মান জানাতে হবে।’

ছয় মিনিটের এই ভাষণকালে প্রধানমন্ত্রী জেন-হেনরি সিয়েন্ট, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, বিচারমন্ত্রী এবং জাতীয় নেতৃবৃন্দ তার পাশে ছিলেন।

রোববার বিক্ষোভ শুরু পর থেকে মোইজে জনসম্মুখে আসেননি বা এ ব্যাপারে কিছু জানাননি। মঙ্গলবার তার জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেয়ার কথা ছিল।

কিন্তু নির্ধারিত সময়ের কয়েকঘন্টা পর তিনি জনগণের সামনে এলেন। আর এর কারণ ব্যাখ্যা করা হয়নি।

বুধবার প্রধান শহরগুলোতে ধর্মঘটের আহ্বানে সাড়া দিয়ে স্কুল, দোকান ও ব্যক্তিগত ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ছিল।

বিরোধীদল জানিয়েছে, বিক্ষোভে ১১ জন প্রাণ হারিয়েছে।


আরো সংবাদ