২৪ আগস্ট ২০১৯

বিয়ের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করেছেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী

বিয়ের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করেছেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী - সংগৃহীত

এর আগে দুই বার বিয়ের গুঞ্জন উঠলেও এবার সত্যিই বিয়ে করছেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডার্ন (৩৮)। পাত্র দীর্ঘদিনের সঙ্গী ক্লার্ক গেফোর্ড। নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর শুক্রবার এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

৩৮ বছর বয়সী জাসিন্ডা আরডার্ন নিউ জিল্যান্ডের সবচেয়ে কম বয়সী প্রধানমন্ত্রী। ২০১৭ সালের অক্টোবরে তিনি প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেন। তার দল লেবার পার্টি নির্বাচনে দ্বিতীয় স্থান অর্জন করলেও কোনও দল নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পাওয়ায় ছোট দল ফার্স্ট পার্টির নেতা উইনস্টন পিটার্সের সমর্থন নিয়ে সরকার গঠন করেন তিনি। আর জাসিন্ডার প্রেমিক গেফোর্ড একটি টিভি অনুষ্ঠানের সঞ্চালক। পাঁচ বছর আগে পরিচয় হয় দুইজনের। সে থেকে প্রেম। গত বছরের ২১ জুন এ জুটির একটি কন্যা সন্তানের জন্ম হয়। নাম রাখা হয় নেভে তে আরোহা। একসাথেই থাকেন তারা। গেফোর্ড পূর্ণ সময়ের জন্যই মেয়ে নেভেকে দেখাশোনা করে থাকেন

জেসিন্ডা ও গেফোর্ডের মুখপাত্র বলেন, ইস্টারের বিরতিতে তারা বিয়ে করতে সম্মত হন। বিয়ের তারিখ ও কে কাকে বিয়ের জন্য প্রস্তাব দিয়েছেন, তা প্রকাশ করেননি তিনি। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্বগ্রহণের পর থেকে এরইমধ্যে বেশ কিছু দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন জাসিন্ডা। তিনি হলেন বিশ্বের দ্বিতীয় প্রধানমন্ত্রী যিনি দায়িত্ব পালনরত অবস্থায় সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। এর আগে ১৯৯০ সালে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালনকালেই সন্তানের জন্ম দেন পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেনজির ভুট্টো। ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে মেয়েকে সাথে নিয়েই জাতিসংঘে প্রথমবারের মতো ভাষণ দিয়েছেন জাসিন্ডা। জাতিসংঘের সম্মেলনে শিশু সন্তানকে সাথে নিয়ে কোনও বিশ্বনেতার যোগ দেয়ার ঘটনা এটাই প্রথম। এ বছরের ১৫ মার্চ নিউ জিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে হামলায় ৫০ জন নিহত হওয়ার পর মুসলিমদের প্রতি সহমর্মিতা ও ঐক্য প্রকাশের জন্য ব্যাপকভাবে প্রশংসিত হয়েছেন নিউ জিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী। হামলার পরপরই একে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড হিসেবে অভিহিত করেছেন তিনি। শপথ নিয়েছেন হামলাকারীর নাম কখনও মুখে না আনার। হামলায় হতাহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে মাথায় হিজাব পরতেও দেখা গেছে তাকে।

শুক্রবার দায়িত্ব পালনের সময় অনামিকায় হীরার আংটি দেখে তার বাগদানের খবরটি চাউর হয়। এর আগেও তার দুইবার বিয়ের ভুয়া গুঞ্জন উঠেছিল। তবে এবার সত্যিই বিয়ের কাজটি সেরে ফেলছেন তিনি।


আরো সংবাদ