১৫ অক্টোবর ২০১৯
সেতুর নিচে বাঁধ

শ্রীপুরে শতাধিক একর জমিতে ফসল উৎপাদন না হওয়ার আশঙ্কা

বরকুল এলাকায় গুরতা বিলে মাছ চাষের জন্য বাঁধ দেয়ার দৃশ্য : নয়া দিগন্ত -

গাজীপুরের শ্রীপুরে সেতুর নিচে বাঁধ দিয়ে স্থানীয় গুরতা ও টুলি বিলের শতাধিক একর আবাদযোগ্য দ্বি-ফসলি জমিতে স্থায়ী মৎস্য চাষের উদ্যোগ নিয়েছে প্রভাবশালী একটি মহল। এতে উপজেলার বরমী ইউনিয়নের বরকুল গ্রামের আবাদযোগ্য ওই জমি ফসল উৎপাদন থেকে বঞ্চিত হবে বলে অভিযোগ করেছে স্থানীয় কৃষকেরা। এ বিষয়ে তারা মৎস্য অধিদফতরের মহাপরিচালকের কাছে অভিযোগ জানিয়ে জেলা মৎস্য কর্মকর্তাসহ বিভিন্ন দফতরে অনুলিপি দিয়েছেন।
বরকুল গ্রামের পল্লী চিকিৎসক নূরুল ইসলাম বলেন, বিলের পানিপ্রবাহ স্বাভাবিক রাখতে কোটি টাকা ব্যয়ে সেতু নির্মাণ করা হয়েছে। আর এখন বাঁধ দেয়া হলে কৃষকদের স্বার্থ ক্ষুণœ হবে।
বরকুল গ্রামের কৃষক আবদুল জব্বার জানান, কোটি কোটি টাকা ব্যয়ে বরমী-গফরগাঁও আঞ্চলিক সড়কে গুরতা বিলের ওপর সেতু নির্মাণ করা হয়েছে। বিলের মধ্যে বাঁধ দিয়ে মাছ চাষ করা হলে কয়েকজন লাভবান হবে। ক্ষতিগ্রস্ত হবে কমপক্ষে দুই হাজার কৃষক। স্থানীয় কয়েকজন প্রভাবশালী হাতেগোনা কয়েকজন জমির মালিকের কাছ থেকে অনুমতি নিয়েছেন। তারা এরই মধ্যে সেতুর নিচে বাঁধ দেয়ার উদ্দেশ্যে পাকা ড্রেন নির্মাণ করছে।
কৃষক শামসুল হক বলেন, এ দু’টি বিল থেকে ছয় মাস ফসল উৎপাদন হয়। বাকি ছয় মাস গবাদিপশুর খাদ্য ও দেশীয় প্রজাতির প্রাকৃতিক মাছ আহরণ করে স্থানীয় সাধারণ কৃষকেরা জীবিকা নির্বাহ করেন। কিন্তু বাঁধ দিয়ে মাছ চাষ করা হলে কৃষকদেরকে বাজার থেকে চাল কিনে খেতে হবে। গবাদিপশু খাদ্যের অভাবে মারা যাবে।
কৃষক জুলহাস উদ্দিন বলেন, প্রভাবশালীরা বিলে লাল নিশান উড়িয়ে সীমানা চিহ্নিত করেছে। এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে মৎস্য বিভাগে অভিযোগ দিয়ে বাধা প্রদান করা হয়েছে। তার পরও বাঁধ নির্মাণকাজ চলছে। এ বিলে বাঁধ দিয়ে মাছ চাষ হলে বিলের পাড় ভেঙে যাবে। আশপাশে ব্যক্তিগত পর্যায়ে চাষ করা বিলের পাড় ভেঙে কৃষকেরা ক্ষতির শিকার হয়েছেন। এ ব্যাপারে বরকুল গ্রামের অভিযুক্ত নূরুজ্জামান বলেন, বিলের জমির মালিকদের অনুমতি নিয়ে বিলে মাছ চাষের প্রস্তুতি চলছে।
গাজীপুর জেলা মৎস্য কর্মকর্তা জিয়া হায়দার চৌধুরী জানান, সেতুর নিচে বাঁধ দিয়ে মাছ চাষ চেষ্টার অভিযোগ তিনি পাননি। এমন হলে বিষয়টি খতিয়ে দেখবেন এবং প্রয়োজনে স্থানীয় প্রশাসনকে সাথে নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

 


আরো সংবাদ