১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯

বিভিন্ন স্থানে নারীসহ তিন লাশ উদ্ধার

-

দেশের বিভিন্ন স্থানে তিন লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এরমধ্যে এক নারী গার্মেন্ট কর্মী রয়েছেন।
গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) সংবাদদাতা জানান, রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ ঘাট থানা পুলিশ হাসনা (৩৫) নামে এক গার্মেন্ট কর্মীর লাশ উদ্ধার করেছে। তিনি ঢাকা সাভার এলাকার আল মুসলিম গ্রুপের একটি গার্মেন্টে কাজ করতেন। চাকরির সুবাদে তিনি সাভারে ভাড়াবাসায় থাকতেন। তিনি রংপুর জেলার বদরগঞ্জ উপজেলার খালপার হাজিপুর গ্রামের মিজানুর রহমানের স্ত্রী ছিলেন।
সোমবার ভোরে গোয়ালন্দ উপজেলার উজানচর ইউনিয়নের শামছু মণ্ডলের বাজার এলাকায় সড়কের পাশে ওই নারীর লাশ স্থানীয়রা পড়ে থাকতে দেখে থানা পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে গোয়ালন্দ ঘাট থানা পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজবাড়ী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।
গোয়ালন্দ ঘাট থানার এএসআই কুহেলী আক্তার জানান, লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরির সময় দেখা যায়, ওই নারীর গলায় ওড়না পেঁচিয়ে শ্বাস রোধ করে হত্যা করা হয়েছে। এ ছাড়া লাশের শরীরের কয়েকটি স্থানে আঘাতের চিহ্ন ও নিহত নারীর যৌনাঙ্গ দিয়ে অস্বাভাবিক রক্তপাত হচ্ছিল। ওই নারীর কাছে থাকা জাতীয় পরিচয়পত্র ও কর্মস্থলের পরিচয়পত্রের সূত্র ধরে তার পরিচয় শনাক্ত করা হয়। তার কর্মস্থল সূত্রে পুলিশ জানতে পারে তিন সন্তানের জননী ওই নারী রোববার বিকেল ৫টা পর্যন্ত গার্মেন্টে কাজ করেছিলেন।
খাগড়াছড়ি সংবাদদাতা জানান, খাগড়াছড়ির দীঘিনালা উপজেলার রশিক নগর মধ্য বেতছড়ি গোরস্থানপাড়া এলাকায় থেকে মো: রবি (৩২) নামে এক যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে দীঘিনালা থানার পুলিশ। ওই যুবক গোরস্থানপাড়া এলাকার মৃত আ: কাদেরের ছেলে।
নাগেশ্বরী (কুড়িগ্রাম) সংবাদদাতা জানান, কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীতে ধানক্ষেত থেকে এক কিশোরের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত মামুন মিয়া (১৬) উপজেলার সন্তোষপুর ইউনিয়নের আলেপের তেপতি পুলিশটারী গ্রামের মৃত সৈফুর রহমানের ছেলে। মঙ্গলবার সকাল ৯টার দিকে তার বাড়ি থেকে প্রায় আড়াই কিলোমিটার দূরে রায়গঞ্জ ইউনিয়নের নেপারপুচি বিলের ধানক্ষেত থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়।


আরো সংবাদ