২০ নভেম্বর ২০১৯

রাস্তার ধারে পড়ে থাকা শিশুটি ফিরল মায়ের কোলে

-

পঞ্চগড় জেলা শহরের কামাতপাড়া এলাকায় পথে পাওয়া নবজাতক কন্যাশিশুটির মা রিমু আক্তারকে খুঁজে পাওয়া গেছে। মিলেছে শিশুটির পুরো পরিচয়। শিশুটির নাম রাখা হয়েছে মোনালিসা। সোমবার বিকেলে ওই নারী পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালের সিসিইউ ইউনিটে গিয়ে তার সন্তানকে কোলে তুলে নিয়ে আদর করেন। শিশুটি এখন সুস্থ আছে বলে জানিয়েছে চিকিৎসকরা। এর আগে ওই নারী এবং তার বাবা আইবুল ইসলাম ও মা শিল্পি আক্তারকে পঞ্চগড় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। প্রথমে শিশুটির বয়স এক মাস ধারণা করা হলেও তার মা রিমু জানান শিশুটির বয়স মাত্র ১৬ দিন।
স্বামীর সাথে দাম্পত্য কলহের জেরে শিশুটিকে পঞ্চগড়ে দত্তক দিতে চেয়েছিলেন এই নারী। কিন্তু কেউ না নেয়ায় তাকে রেখেই পালিয়ে যান। ১৭ কামাতপাড়া এলাকার অশোক চন্দ্র মদকের বাড়ির সামনে কন্যাশিশুটিকে পড়ে থাকতে দেখে ওই এলাকার জুয়েল ও তার মা জুলেখা খাতুন। পরে তারা পুলিশকে বিষয়টি জানান। খবর পেয়ে পুলিশ শিশুটিকে উদ্ধার করে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।
পঞ্চগড় সদর থানার ওসি (তদন্ত) জামাল হোসেন বলেন, শিশুটির মায়ের কথাবার্তা অসংলগ্ন। আপাতত হাসপাতালে সন্তানকে দেখভাল করার দায়িত্ব ওই নারী ও তার বাবা মাকে দেয়া হয়েছে। কয়েকদিন পুলিশি পাহারায় তার আচরণবিধি লক্ষ্য রাখা হবে।
পঞ্চগড় জেলা প্রশাসক সাবিনা ইয়াসমিন বলেন, শিশুটির মাকে পাওয়া গেছে। বর্তমান স্বামীর সাথে টানাপড়েনের জেরে ওই নারী শিশুটিকে রেখে যাওয়ার কঠিন সিদ্ধান্ত নেন বলে আমরা জেনেছি। টেলিভিশন ও পত্রপত্রিকায় জেলা প্রশাসক তার সন্তানকে কোলে তুলে নিয়েছে জেনে তার বুকে মাতৃত্ব জেগে উঠেছে। সে এখন তার সন্তানকে ফিরে পেতে চায়। সে এখন তার সন্তানকে হাসপাতালে কয়েকদিন দেখাশুনা করবে। সেখানে বোঝা যাবে সে শিশুটি লালনপালনে যোগ্য কি না। তারপর পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

 


আরো সংবাদ