০৯ ডিসেম্বর ২০১৯

ইন্দুরকানীতে ১২৫ হেক্টর জমির কলাক্ষেত লণ্ডভণ্ড

-

ইন্দুরকানীতে ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের আঘাতে ১২৫ হেক্টর জমির কলাক্ষেত লণ্ডভণ্ড হয়ে যাওয়ায় চাষিরা দিশেহারা হয়ে পড়েছেন। ধারদেনা ও বিভিন্ন এনজিও থেকে ঋণ নিয়ে উপজেলার কলাচাষিরা কলার চাষ করেন। কিন্তু কৃষকের স্বপ্নকে লণ্ডভণ্ড করে দেয় সর্বনাশা ঘূর্ণিঝড় বুলবুল। কলা চাষ করেই ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকরা জীবিকা নির্বাহ করতেন।
চরনী পত্তাশী গ্রামের মোঃ বাদল খানের দেড় বিঘা জমির ১৫ শ’ কলাগাছ ক্ষতির পরিমাণ দেড় লাখ টাকা, জালাল শেখের দুই বিঘা জমির ১৭ শ’ কলাগাছ ভেঙে দেড় লক্ষ টাকার ক্ষতি, হাসান আকনের তিন বিঘা জমির ২ হাজার কলাগাছ ভেঙে দুই লাখ ৫০ হাজার টাকার ক্ষতি, ছবির আকনের দেড় বিঘা জমির ১৫ শ’ কলাগাছ ভেঙে দেড় লাখ টাকা, হানিফ খানের তিন বিঘা জমির তিন হাজার কলাগাছ ভেঙে তিন লাখ টাকা, জাকির হোসেন হাওলাদারের তিন বিঘা জমির তিন হাজার কলাগাছ ভেঙে তিন লাখ টাকা, জানে আলম হাওলাদারের চার বিঘা জমির চার হাজার কলাগাছ ভেঙে চার লাখ টাকা, জাহাঙ্গীর হাওলাদারের দুই বিঘা জমির দুই হাজার কলাগাছ ভেঙে দুই লাখ টাকা, আলমগীরের ছয় বিঘা জমির ছয় হাজার গাছ ভেঙে ছয় লাখ টাকা, বাবুল খানের ছয় বিঘা জমির ছয় হাজার গাছ ভেঙে ছয় লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা হুমায়রা সিদ্দীকা জানান, ১৪৫ জন কলাচাষির ১২৫ হেক্টর কলাক্ষেতের মধ্যে ১০০ হেক্টর ক্ষেতের ক্ষতি হয়েছে।

 


আরো সংবাদ