১২ ডিসেম্বর ২০১৮

আগৈলঝাড়ায় স্ত্রীর স্বীকৃতি পেতে আদালতে মামলা

-

বরিশালের আগৈলঝাড়ায় ধর্ষনে অন্তঃসত্ত্বা নারী শ্রমিক স্ত্রীর স্বীকৃতি পাওয়ার জন্য আদালতে মামলা দায়ের করেছে। বৃহস্পতিবার ধর্ষিতা বাদী হয়ে এক শ্রমিককে অভিযুক্ত করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালে মামলা দায়ের করেন। ট্রাইবুনালের বিচারক মো.আবু আজাদ শামীম মামলাটি বাগধা ইউপি চেয়ারম্যানকে তদন্ত করে প্রতিদেন ও অন্তঃসত্ত্বা নারীকে ডিএনএ পরীক্ষার প্রতিবেদন জমা দেয়ার নির্দেশ দেন। অভিযুক্ত শরীফ বখতিয়ার একই উপজেলার চাঁদত্রিশিরা গ্রামের সাহেব বখতিয়ারের ছেলে।
মামলা সূত্রে জানা গেছে, রাজশাহী জেলা থেকে কাজের সন্ধানে গত ৪বছর পূর্বে স্বামী সন্তান নিয়ে বরিশালের আগৈলঝাড়ায় আসেন ওই নারী শ্রমিক। উপজেলার বাগধা গ্রামের কালাম হাওলাদারের আটোরাইচ মিলে কাজ শুরু করেন। কাজের সুবাদে শরীফের সাথে তার পরিচয় হয়। পরিচয়ের পর থেকেই বিভিন্ন সময় শরীফ ওই নারী শ্রমিককে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। এতে রাজি না হওয়ায় তার স্বামীকে হত্যার হুমকি দেয় শরীফ। পরে তার স্বামী রাজশাহী গিয়ে ফিরে না আসায় চলতি বছরের ১০ এপ্রিল রাতে ওই নারী শ্রমিককে ধর্ষন করে শরীফ বখতিয়ার। ধর্ষন শেষে সাদা কাগজে স্বাক্ষর নেয়াসহ তাকে বিয়ের আশ্বাস দেয়া হয়। পরে তার স্বামীর সাথে তার তালাক হয়েছে প্রচার করে শরীফ তাকে বিয়ের কথা জানিয়ে শারীরিক সম্পর্ক শুরু করেন। এতে ওই নারী শ্রমিক ৩ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পরেন। ১ আগষ্ট রাতে পুনরায় শরীফ শারীরিক সম্পর্ক করতে চাইলে তিন মাসের অন্তঃসত্ত্বার কথা জানিয়ে স্ত্রীর মর্যাদার দাবী জানান ওই নারী শ্রমিক। এ সময় তাকে পুনরায় ধর্ষন করে এলাকা থেকে চলে যাওয়ার হুমকি দেয় শরীফ। এ ঘটনায় ওই নারী শ্রমিক বৃহস্পতিবার বরিশাল আদালতে মামলা দায়ের করলে আদালতের বিচারক ওই আদেশ দেন।


আরো সংবাদ