২১ নভেম্বর ২০১৯

মাকে পিটিয়ে মারার অভিযোগ ছেলে-ছেলের বউয়ের বিরুদ্ধে

গাছ থেকে সুপারি পাড়াকে কেন্দ্র করে পুত্র ও পুত্রবধূ মিলে আম্বিয়া (৭২) নামের এক বৃদ্ধাকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন গুরুতর আহত আম্বিয়া আজ শনিবার বিকেলে মারা যায়। আম্বিয়া উপজেলার জানখালী গ্রামের কৃষক হেমায়েত তালুকদারের স্ত্রী।

নিহতের পুত্র শহিদ জানান, শনিবার সকালে তার পিতা হেমায়েত তালুকদার তাকে নিয়ে বাগানে পাকা সুপারি পাড়তে যায়। এসময় বড় ভাই জলিল তাকে সুপারি পাড়তে বাধা দেয়। এ নিয়ে ভাইয়ে ভাইয়ে বাক বিতণ্ডার এক পর্যায়ে বড় ভাই জলিল ও তার স্ত্রী মাহমুদা, পুত্র সোবাহান ও ছরোয়ার মিলে আমাকে ও আমার পিতাকে মারধর করে।

এসময় ডাক চিৎকার শুনে বৃদ্ধা মা আম্বিয়া ঘটনাস্থলে ছুটে আসলে তাকেও এলোপাথাড়ি লাথি-কিল-থাপ্পর মারে। এতে তিনি গুরুতর আহত হয়। আহত অবস্থায় তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করলে ওইদিন বিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আম্বিয়া মারা যায়।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার জিয়াউল হক টিপু জানান, ওই বদ্ধাকে আহত অবস্থায় ভর্তি করা হলেও তার শরীরে কোন আঘাতের চিহ্ন ছিল না। আঘাত কিংবা স্ট্রোকে মারা গেছে কিনা তা ময়না তদন্তের রিপোর্টে জানা যাবে।

মঠবাড়িয়া থানার এসআই শহিদুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় কোন লিখিত অভিযোগ পাওয়া যায়নি। তবে হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার বিষয়টি থানায় অবহিত করলে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়।


আরো সংবাদ