২২ অক্টোবর ২০১৯, ৭ কার্তিক ১৪২৪, ১ সফর ১৪৩৯

শেষ সপ্তাহে লেনদেন বেড়েছে ১৬৭ কোটি টাকা

-

ঈদের আগে শেষ সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন বেড়েছে ১৬৭ কোটি ৩৬ লাখ ৬৭ হাজার ২৪৮ টাকা বা ৭ দশমিক ৬০ শতাংশ। মোট ৫ কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছে ২ হাজার ৩৬৯ কোটি ৫৯ লাখ ৭৬ হাজার ৭০৩ টাকার শেয়ার। আগের সপ্তাহে ৫ কার্যদিবসে লেনদেনের এ পরিমাণ ছিল ২ হাজার ২০২ কোটি ২৩ লাখ ৯ হাজার ৪৫৫ টাকা। এক সপ্তাহের ব্যবধানে এবং গড়ে লেনদেন বেড়েছে ৩৩ কোটি ৪৭ লাখ ৩৩ হাজার ৪৫০ টাকা। গত সপ্তাহে গড়ে লেনদেন হয়েছে ৪৭৩ কোটি ৯১ লাখ ৯৫ হাজার ৩৪১ টাকা। তার আগের সপ্তাহে গড়ে লেনদেন হয়েছে ৪৪০ কোটি ৪৪ লাখ ৬১ হাজার ৮৯১ টাকা।
বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, বিদায়ী সপ্তাহে ডিএসইর মোট লেনদেনে ‘এ’ ক্যাটাগরির শেয়ারের দখলে ছিল ৮০ দশমিক ৭৪ শতাংশ। ‘এ’ ক্যাটাগরিতে শেয়ারের লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ৯১৩ কোটি ৩৩ লাখ ১৪ হাজার ৭০৩ টাকার। আগের সপ্তাহে লেনদেনের পরিমাণ ছিল ১ হাজার ৭৮৮ কোটি ৩১ লাখ ৭৭ হাজার ৪৫৫ টাকা। লেনদেনে গেল সপ্তাহে ‘বি’ ক্যাটাগরির শেয়ারের অংশগ্রহণ ছিল ১০ দশমিক ৫১ শতাংশ। এসব শেয়ার লেনদেন হয়েছে ২৪৯ কোটি ৬ লাখ ১৯ হাজার টাকা। আগের সপ্তাহে লেনদেনের পরিমাণ ছিল ২৭৪ কোটি ৬৭ লাখ ৩৭ হাজার টাকা।
আগের সপ্তাহের চেয়ে লেনদেন বেড়েছে সদ্য শুরু হওয়া নতুন কোম্পানির শেয়ারের। ডিএসইর মোট লেনদেনে ‘এন’ ক্যাটাগরির অংশগ্রহণ ছিল ৮ দশমিক ৬ শতাংশ। এসব শেয়ারের লেনদেন হয়েছে ১৯০ কোটি ৯৩ লাখ ৩৫ হাজার টাকা। আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ১১৯ কোটি ৬৬ লাখ ৫০ হাজার টাকা। ডিএসইর লেনদেনে গেল সপ্তাহে ‘জেড’ ক্যাটাগরির দখলে ছিল দশমিক ৬৯ শতাংশ। এসব শেয়ারের লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১৬ কোটি ২৭ লাখ ৮ হাজার টাকা, আগের সপ্তাহে এসব শেয়ারের লেনদেন হয়েছে ১৯ কোটি ৫৭ লাখ ৪৫ হাজার টাকা।
এ দিকে, গত সপ্তাহে বেশির ভাগ কোম্পানির শেয়ারের দর বেড়েছে। আলোচ্য সময়ে ৩৫৭টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে বেড়েছে ১৯৫টি, কমেছে ১৪১টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৯টি এবং লেনদেন হয়নি ২টি কোম্পানির শেয়ার। টপটেন গেইনার বা দর বৃদ্ধির শীর্ষে উঠে এসেছে প্রগতি লাইফ ইন্স্যুরেন্স। সপ্তাহে কোম্পানির সর্বোচ্চ দর বেড়েছে ২৬ দশমিক ৪৮ শতাংশ। শেয়ারটি সর্বশেষ ১৩৯ টাকা দরে লেনদেন হয়। সপ্তাহজুড়ে শেয়ারটি সর্বমোট ১৩ কোটি ৮০ লাখ ১৬ হাজার টাকা লেনদেন করে, যা গড়ে প্রতিদিন ২ কোটি ৭৬ লাখ ৩ হাজার ২০০ টাকা।
গেইনারের দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে আলহাজ টেক্সটাইল। গত সপ্তাহে শেয়ারটির সর্বোচ্চ দর বেড়েছে ১৮ দশমিক ৮০ শতাংশ। শেয়ারটি সর্বশেষ ৬৩ টাকা দরে লেনদেন হয়। সপ্তাহজুড়ে শেয়ারটি সর্বমোট ১৭ কোটি ৫২ লাখ ৯১ হাজার টাকা লেনদেন করে, যা গড়ে প্রতিদিন ৩ কোটি ৫০ লাখ ৫৮ হাজার ২০০ টাকা। মুন্নু জুট স্ট্যাপলার্স গেইনারের তৃতীয় স্থানে রয়েছে। সপ্তাহে শেয়ারটির সর্বোচ্চ দর বেড়েছে ১৮ দশমিক ৫২ শতাংশ। শেয়ারটি সর্বশেষ ১ হাজার ২৫০ টাকা দরে লেনদেন হয়। সপ্তাহজুড়ে শেয়ারটি সর্বমোট ৪১ কোটি ৩৫ লাখ ৬৩ হাজার টাকা লেনদেন করে, যা গড়ে প্রতিদিন ৮ কোটি ২৭ লাখ ১২ হাজার ৬০০ টাকা। তালিকায় থাকা অন্য কোম্পানিগুলো হচ্ছেÑ খুলনা পাওয়ার কোম্পানি, গ্লোবাল ইন্স্যুরেন্স, ড্রাগন সুয়েটার, জেএমআই সিরিঞ্জ, তাকাফুল ইন্স্যুরেন্স, বাংলাদেশ ফিন্যান্স ও সামিট এলায়েন্স পোর্ট।
বিদায়ী সপ্তাহ লেনদেন শেষে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সপ্তাহে টপটেন লুজার বা দর পতনের শীর্ষে উঠে এসেছে এসইএমএল আইবিবিএল শরিয়াহ ফান্ড। সপ্তাহে ফান্ডটির সর্বোচ্চ দর কমেছে ২৫ দশমিক ৮৬ শতাংশ। ফান্ডটি সর্বশেষ ৮ টাকা ৬০ পয়সা দরে লেনদেন হয়। সপ্তাহজুড়ে ফান্ডটি সর্বমোট ৫ কোটি ৯ লাখ ৬৮ হাজার টাকা লেনদেন করে, যা গড়ে প্রতিদিন ১ কোটি ১ লাখ ৯৩ হাজার ৬০০ টাকা। লুজারের দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে এসইএমএল এফবিএলএসএল গ্রোথ ফান্ড। সপ্তাহে ফান্ডটির সর্বোচ্চ দর কমেছে ২৩ দশমিক ৪৬ শতাংশ। ফান্ডটি সর্বশেষ ২৪ টাকা ৮০ পয়সা দরে লেনদেন হয়। সপ্তাহজুড়ে কোম্পানিটি সর্বমোট ১ কোটি ২৯ লাখ ৪০ হাজার টাকা লেনদেন করে, যা গড়ে প্রতিদিন ২৫ লাখ ৮৮ হাজার টাকা।
ভিএফএস থ্রেড রয়েছে লুজারের তৃতীয় স্থানে। গত সপ্তাহে শেয়ারটির সর্বোচ্চ দর কমেছে ১৭ দশমিক ১৯ শতাংশ। কোম্পানিটি সর্বশেষ ৩৯ টাকা ৮০ পয়সা দরে লেনদেন হয়। সপ্তাহজুড়ে কোম্পানিটি সর্বমোট ৩১ কোটি ৮ লাখ ১ হাজার টাকা লেনদেন করে, যা গড়ে প্রতিদিন ৬ কোটি ২১ লাখ ৬০ হাজার ২০০ টাকা। তালিকায় থাকা অন্য কোম্পানিগুলো হচ্ছেÑ এসইএমএল লেকচার ইক্যুইটি ম্যানেজমেন্ট ফান্ড, বাংলাদেশ ওয়েল্ডিং ইলেক্ট্রোড, এমারেল্ড অয়েল, ফনিক্স ফিন্যান্স, কে অ্যান্ড কিউ, সিএপিএম বিডিবিএল মিউচ্যুয়াল ফান্ড ও আজিজ পাইপস।
ঈদের ছটি শুরু হওয়ার আগের সপ্তাহে লেনদেন শেষে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সপ্তাহের লেনদেনের শীর্ষে উঠে এসেছে ইউনাইটেড পাওয়ার। সপ্তাহজুড়ে কোম্পানিটির ২৭ লাখ ৪৭ হাজার ৭৫০টি শেয়ার লেনদেন হয়েছে, যার বাজারমূল্য ১০৬ কোটি ৯৯ লাখ ৪২ হাজার টাকা। তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে মুন্নু সিরামিক। কোম্পানিটির ৪৬ লাখ ৪৫ হাজার ৮০৭টি শেয়ার লেনদেন হয়েছে, যার বাজারমূল্য ৯৮ কোটি ৬৬ লাখ ৬৩ হাজার টাকা।
বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশন তালিকার তৃতীয় স্থানে রয়েছে। কোম্পানিটির ১ কোটি ২৪ লাখ ৫৪ হাজার ৬৯৪টি শেয়ার লেনদেন হয়েছে, যার বাজারমূল্য ৭৩ কোটি ৬৬ লাখ ৪০ হাজার টাকা। তালিকার চতুর্থ স্থানে রয়েছে জেএমআই সিরিঞ্জ। কোম্পানিটির ১৩ লাখ ২৩ হাজার ৬৬০টি শেয়ার লেনদেন হয়েছে, যার বাজারমূল্য ৬৪ কোটি ৫২ লাখ ৫২ হাজার টাকা। ফরচুন সুজ তালিকার পঞ্চম স্থানে রয়েছে। কোম্পানিটির ১ কোটি ৪৯ লাখ ৭৫ হাজার ১২৪টি শেয়ার লেনদেন হয়েছে, যার বাজারমূল্য ৬১ কোটি ১৫ লাখ ৮২ হাজার টাকা। লেনদেনের তালিকায় থাকা অন্য কোম্পানিগুলো হচ্ছেÑ কপারটেক ইন্ডাস্ট্রিজ, স্কয়ার ফার্মা, খুলনা পাওয়ার কোম্পানি, মুন্নু জুট স্ট্যাপলার্স ও ইন্দো-বাংলা ফার্মাসিউটিক্যালস।

 


আরো সংবাদ

প্রাথমিক শিক্ষকদের মহাসমাবেশ ঘিরে টানটান উত্তেজনা কাউন্সিলর রাজীবের হাতে ছিল আলাদিনের চেরাগ নিরীক্ষা জটিলতায় বাতিল হচ্ছে রবির হাজার কোটি টাকার বিনিয়োগ খেলা চলাকালেই গ্যালারিতে ঘুম শাস্ত্রীর! নেটদুনিয়ায় তোলপাড় ঢাবির ক ইউনিটের ফলে ভুল : দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দাবি সাদা দলের নিজেকে ‘স্যার’ বলতে বাধ্য করতেন ওমর ফারুক চৌধুরী হেরিটেজ হ্যান্ডলুম ফেস্টিভ্যাল শুরু কাল কেরানীগঞ্জে বিএনপির কমিটি গঠন নিখোঁজের ৮ দিন পর ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার নিরীক্ষা জটিলতায় বাতিল হচ্ছে রবির হাজার কোটি টাকার বিনিয়োগ প্রাথমিক শিক্ষকদের কর্মস্থল ত্যাগ না করতে পরিপত্র মহাসমাবেশ ঘিরে টানটান উত্তেজনা

সকল