১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯

ঈদপরবর্তী শেয়ারবাজারে আলোর মুখ

-

আলোর মুখ দেখিয়ে ঈদপরবর্তী প্রথম কার্যদিবস পার করেছে দেশের শেয়ারবাজার। দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সব ক’টি মূল্যসূচক গতকাল বেড়েছে। লেনদেন শেষে ডিএসইএক্স আগের কার্যদিবসের তুলনায় ১৫ পয়েন্ট বেড়ে ৫ হাজার ২১৬ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। পাশাপাশি ডিএসইর-৩০ সূচক ৪ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৮৪১ পয়েন্টে উঠে এসেছে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৫ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ১৯৭ পয়েন্টে। চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৬০ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১৫ হাজার ৯৫৭ পয়েন্টে। ঈদের আগের শেষ কার্যদিবস ৮ আগস্টও ঊর্ধ্বমুখী ছিল দেশের শেয়ারবাজার।
পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে টানা ৯ দিন বন্ধ ছিল দেশের শেয়ারবাজার। গতকাল লেনদেনের শুরুতেই শেয়ারবাজারের মূল্যসূচক ঊর্ধ্বমুখীর আভাস দেয়। লেনদেন শুরুর ২০ মিনিটেই ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স ২০ পয়েন্ট বেড়ে যায়। তবে আধা ঘণ্টার মধ্যে নিম্নমুখী হয়ে পড়ে সূচক। এক পর্যায়ে দুপুর ১২টার দিকে ডিএসইএক্স ঋণাত্মকও হয়ে পড়ে। তবে শেষ ঘণ্টার লেনদেনের প্রভাবে মূল্যসূচক ঊর্ধ্বমুখী থেকেই শেষ হয় দিনের লেনদেন। এর মাধ্যমে ঈদের আগের শেষ কার্যদিবসের মতো ঈদের পরের প্রথম কার্যদিবসও ভালোই কাটল শেয়ারবাজারের বিনিয়োগকারীদের জন্য।
মূল্যসূচকের পাশাপাশি গতকাল ডিএসইতে বেড়েছে বেশির ভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম। লেনদেনে অংশ নেয়া ১৮৪টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ১২৩টির এবং দাম অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৫টির। তবে মূল্যসূচক ও বেশির ভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার দাম বাড়লেও ডিএসইতে কমেছে লেনদেনের পরিমাণ। দিনভর বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ৩২৩ কোটি ৭০ লাখ টাকা। ঈদের আগের শেষ কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৪১০ কোটি ৫৬ লাখ টাকার। সে হিসাবে লেনদেন কমেছে ৮৬ কোটি ৮৬ লাখ টাকা। বাজারটিতে এদিন টাকার পরিমাণে সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে খুলনা পাওয়ার কোম্পানির শেয়ার। কোম্পানিটির ২৪ কোটি ৬৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা জেএমআই সিরিঞ্জের ১৩ কোটি ৭৯ লাখ টাকার লেনদেনে হয়েছে। ১২ কোটি ৯ লাখ টাকার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে উঠে এসেছে ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন।
দেশের অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই গতকাল ৬০ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৫ হাজার ৯৫৭ পয়েন্টে। বাজারটিতে গতকাল লেনদেন হয়েছে ১৫ কোটি ৫ লাখ টাকা। লেনদেনে অংশ নেয়া ২৪৫টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দাম বেড়েছে ১২৭টির, কমেছে ৭৭টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪১টি।
দর বাড়ার শীর্ষে এসিআই
ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গতকাল টপটেন গেইনার বা দর বাড়ার শীর্ষ স্থানে উঠে এসেছে এসিআই ফর্মুলেশনস লিমিটেড। এদিন কোম্পানিটির শেয়ারের দর বেড়েছে ১০ শতাংশ বা ১৪ টাকা ৯০ পয়সা। শেয়ারটি সর্বশেষ ১৬৩ টাকা ৯০ পয়সা দরে লেনদেন হয়েছে। এদিন শেয়ারটি ৪৭৬ বারে ১ লাখ ৫০ হাজার ২৪টি শেয়ার লেনদেন করে, যার বাজার মূল্য ২ কোটি ৪২ লাখ ৪৮ হা জার টাকা। গেইনারের দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ফনিক্স ফাইন্যান্স ফার্স্ট মিউচুয়াল ফান্ড। এ দিন কোম্পানির শেয়ার দর বেড়েছে ১০ শতাংশ বা ৬০ পয়সা। শেয়ারটি সর্বশেষ ৭ টাকা ৬০ পয়সা দরে লেনদেন হয়েছে। এদিন কোম্পানিটি ৩৮১ বারে ১৮ লাখ ৭৪ হাজার ৯১৪টি শেয়ার লেনদেন করে, যার বাজার মূল্য ১ কোটি ৪৩ লাখ ৯৭ হাজার টাকা।
তৃতীয় স্থানে রয়েছে ইস্টার্ন ইন্স্যুরেন্স। এই দিন কোম্পানিটির শেয়ারের দর বেড়েছে ৯ দশমিক ৮৯ শতাংশ বা ৩ টাকা ৮০ পয়সা। শেয়ার সর্বশেষ ৪২ টাকা ২০ পয়সা দরে লেনদেন হয়। কোম্পানিটি ৭৫৪ বারে ৭ লাখ ৮৬ হাজার ১৩টি শেয়ার লেনদেন করে, যার বাজার মূল্য ৩ কোটি ২১ লাখ ৯ হাজার টাকা। তালিকায় থাকা অন্য কোম্পানিগুলো হচ্ছেÑ এসইএমএল এফবিএসএল গ্রোথ ফান্ড, এসইএমএল আইবিবিএল শরিয়াহ ফান্ড, এসইএমএল লেকচার ইক্যুইটি মিউচুয়াল ফান্ড, এসিআই কোম্পানি লিমিটেড, গ্লোবাল ইন্স্যুরেন্স, সোনারবাংলা ইন্স্যুরেন্স ও লিব্রা ইনফিউশনস লিমিটেড।
পতনের শীর্ষে ভিএফএস
ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গতকাল টপটেন লুজার বা দরপতনের তালিকার শীর্ষ স্থান দখল করে রয়েছে ভিএফএস থ্রেড ডাইং লিমিটেড। এই কোম্পানির শেয়ারদর আগের দিনের চেয়ে ৮ দশমিক ৮৬ শতাংশ বা ৩ টাকা ৫০ পয়সা কমেছে। কোম্পানির শেয়ার সর্বশেষ ৩৬ টাকা দরে লেনদেন হয়। এদিন কোম্পানিটি ১ হাজার ৮৮৮ বারে ১১ লাখ ৭৯ হাজার ৮১৯টি ইউনিট লেনদেন করে, যার বাজার মূল্য ৪ কোটি ৩৬ লাখ ৪৮ হাজার টাকা। তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ডাক্কা ডাইং অ্যান্ড মেন্যুফেকচারিং কোম্পানি লিমিটেড। কোম্পানিটির শেয়ারদর আগের দিনের চেয়ে ৭ দশমিক ৮৯ শতাংশ বা ৩০ পয়সা কমেছে। শেয়ার সর্বশেষ ৩ টাকা ৫০ পয়সা দরে লেনদেন হয়েছে। এদিন কোম্পানিটি ৫০ বারে ৬৪ হাজার ২৬৪টি ইউনিট লেনদেন করে, যার বাজার মূল্য ২ লাখ ২৭ হাজার টাকা।
লুজার তালিকায় তৃতীয় স্থানে রয়েছে ফারইস্ট ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড। কোম্পানিটির শেয়ার দর আগের দিনের চেয়ে ৫ দশমিক ৮৮ শতাংশ বা ১০ পয়সা কমেছে। শেয়ার সর্বশেষ ৩ টাকা ৩০ পয়সা দরে লেনদেন হয়েছে। এদিন কোম্পানিটি ৩৩ বারে ৫৬ হাজার ৮২৪টি শেয়ার লেনদেন করে, যার বাজার মূল্য ১ লাখ ৮৩ হাজার টাকা। তালিকায় উঠে আসা অন্যান্য কোম্পানি হচ্ছে- বীচ হ্যাচারি লিমিটেড, হামিদ ফেব্রিক্স লিমিটেড, সোনারাগাঁও ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড, ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস লিমিটেড, টুং হাই নিটিং অ্যান্ড ডাইং লিমিটেড, শেফার্ড ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড ও প্রিমিয়ার লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্স লিমিটেড।


আরো সংবাদ