২৪ অক্টোবর ২০১৯

মনির আমাদের কেউ ছিল না, জামায়াত

সম্রাটের কাকরাইলের কার্যালয় র‌্যাবের অভিযান - ছবি : নয়া দিগন্ত

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার আলকরা ইউনিয়নের কুঞ্জশ্রীপুর গ্রামে মুনির চৌধুরী নামের এক ব্যক্তির বাড়ি থেকে রোববার যুবলীগ নেতা ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট ও এনামুল হক আরমানকে আটক করে র‌্যাব। এরপর থেকেই ওই বাড়ির মালিক মনির চৌধুরী জামায়াতের রাজনীতির সাথে জড়িত বলে বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রচার করা হয়।

তবে স্থানীয় চৌদ্দগ্রাম উপজেলা জামায়াতের আমীর মাহফুজুর রহমান জানান মনির চৌধুরীর সাথে জাময়াত-শিবিরের কোন সম্পৃক্ততা ছিল না। সে কখনো আমাদের রাজনীতি করেনি, আমরা জানি তিনি একজন পরিবহন ব্যবসায়ী।

আলকরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান একেএম গোলাম ফারুক জানান, যে বাড়ি থেকে সম্রাট র‌্যাবের হাতে আটক হয়েছেন ওই বাড়িটি স্টার লাইন পরিবহনের মালিক হাজী আলা উদ্দিনের ভগ্নিপতি ও স্টার লাইন পরিহনের পরিচালক মনির চৌধুরীর। তিনি আরও জানান, শনিবার রাত ৯টার দিকে প্রথমে র‌্যাবের ৭-৮টি গাড়ি ওই বাড়িটি ঘিরে ফেলে, পরে রাত বাড়ার সাথে সাথে আরও মোট ১০-১২টি গাড়ি মনির চৌধুরীর বাড়ির পাশে অবস্থান নেয়। ভোর ৫টার দিকে র‌্যাব সদস্যরা সম্রাট ও তার এক সহযোগীকে নিয়ে ঢাকায় চলে যায়। তবে ওই বাড়ি থেকে কিছু উদ্ধার করা হয়েছে কিনা তা তিনি নিশ্চিত করতে পারেননি।

বাড়ির মালিক পরিবহন ব্যবসায়ী মনির চৌধুরীর বোন নাজু বেগম জানান, র‌্যাব যাদের ধরে নিয়ে যায় তারা গত ৩ দিন আগে এই বাড়িতে এসে ২য় তলার একটি কক্ষে অবস্থান নেয়, সেখানেই তাদের খাবার দেয়া হতো, কখনো বাসার বাইরে বের হতো না। আমাদেরকে জানানো হয় তারা বেড়াতে এসেছেন। তিনি আরও জানান, ৩ মাস আগে তার ভাই এই বাড়িটি নির্মাণ করে। অভিযানের সময় মনির চৌধুরী বাসায় ছিল বলেও তিনি জানান।


আরো সংবাদ