২১ নভেম্বর ২০১৯

খাসির নামে শিয়ালের গোস্ত বিক্রি করতো দুই যুবক

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে ২০ কেজি শিয়ালের গোস্ত ও ১০ কেজি কলিজাসহ দুই যুবককে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার দুপুর ১টার দিকে উপজেলার সরাইল-বিশ্বরোড বাসস্ট্যান্ড থেকে খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানা পুলিশ তাদের আটক করে।

আটকৃতরা হলেন- হবিগঞ্জের লাখাই উপজেলার মোরাছুড়ি এলাকার মাদু মিয়ার ছেলে আজত আলী (২২) ও একই এলাকার সাবু মিয়ার ছেলে সাদ্দাম হোসেন (২০)। আটক আরজত আলীকে ছয় মাসের কারাদণ্ড ও সাদ্দাম হোসেনকে পাঁচ হাজার টাকার জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।

পুলিশ জানিয়েছে, ঢাকার পূর্ব রামপুরা এলাকার আল মেজবান নামে একটি মাংসের দোকান থেকে কম দামে শিয়ালের গোস্ত ও কলিজা কিনে এনে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিভিন্ন এলাকার রেস্টুরেন্টে গিয়ে খাসির গোস্ত বলে বিক্রি করছিল ওই দুই যুবক। ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের কাউতলি এলাকার একটি রেস্টুরেন্টে ছয় কেজি গোস্ত ও কলিজা বিক্রি করেছে তারা। সরাইল-বিশ্বরোড বাসস্ট্যান্ড এলাকার একটি রেস্টুরেন্টে বিক্রি করার সময় তাদেরকে আটক করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে শিয়ালের ২০ কেজি মাংস ও ১০ কেজি কলিজা জব্দ করা হয়।

খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাইনুল ইসলাম জানান, ভ্রাম্যামাণ আদালতের মাধ্যমে সরাইল উপজেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফারজানা প্রিয়াংকা আরজত আলীকে ছয় মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন। আর সাদ্দাম হোসেনকে পাঁচ হাজার টাকার জরিমানা করা হয়েছে।


আরো সংবাদ