২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

চালক পূর্ণিমাকে নিয়ে ছিটকে পড়লেন ফেরদৌস

চালক পূর্ণিমাকে নিয়ে ছিটকে পড়লেন ফেরদৌস - সংগৃহীত

মোটরসাইকেলে চালক পূর্ণিমার পেছনে বসা ছিলেন ফেরদৌস। একটু বেখেয়ারে পূর্ণিমাকে নিয়ে রাস্তার পাশে ছিটকে পড়েছেন ফেরদৌস। রোববার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে নোয়াখালীর চরমণ্ডলে। সেখানে ‘গাঙচিল’ ছবির শুটিং করছেন তারা। ছবিটির পরিচালক নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামূল বলেন, ‘রোববার সকালে মোটরসাইকেলের একটি দৃশ্যের শুটিং হচ্ছিল। শনিবার এই দৃশ্যের শুটিং হয়েছে। কিছু কাজ বাকি ছিল। সেটাই রোববার করা হয়। মোটরসাইকেল চালাচ্ছিলেন পূর্ণিমা। পেছনে বসে ছিলেন ফেরদৌস। কিছু বুঝে ওঠার আগেই রাস্তায় স্লিপ কেটে তাদের মোটরসাইকেল উল্টে যায়। ফেরদৌস আর পূর্ণিমা ছিটকে গিয়ে রাস্তার পাশে পড়ে যান। দুজন যথেষ্ট ব্যথা পেয়েছেন। দুজনেরই শরীরের কিছু স্থানে কেটে গেছে। সেখান থেকে রক্ত ঝরেছে। তাদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।’

রোববার দুপুরে নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামূলের সাথে যখন কথা হয়, তখন ফেরদৌস আর পূর্ণিমাকে বসুরহাট সেন্ট্রাল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। তিনি আরও জানালেন, ঘটনার পর ফেরদৌস আর পূর্ণিমাকে বিশ্রামে রাখা হয়। কিন্তু ব্যথা বেড়ে যাওয়ায় তাঁদের হাসপাতালে নেওয়া হচ্ছে।

এরপর কথা হয়েছে ফেরদৌসের সাথেও । তিনি বলেন, ‘প্রচণ্ড ব্যথা পেয়েছি। পূর্ণিমাও। আমি ব্যথা পেয়েছি সোল্ডারে আর পূর্ণিমা পায়ে। দুজনেরই খুব ব্যথা হচ্ছে। পূর্ণিমার পা ফুলে গেছে। হাসপাতালে যাচ্ছি। দেখি ডাক্তার কী বলেন।’

৬ ফেব্রুয়ারি থেকে চরমণ্ডল আর চর এলাহিতে ‘গাঙচিল’ ছবির শুটিং করছেন ফেরদৌস আর পূর্ণিমা। গতকাল তাঁদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন আনিসুর রহমান মিলন। সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের উপন্যাস ‘গাঙচিল’ নিয়ে ছবিটি তৈরি করছেন নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামূল।


আরো সংবাদ