২২ অক্টোবর ২০১৯, ৭ কার্তিক ১৪২৪, ১ সফর ১৪৩৯

৯২তম অস্কারে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করবে ‘আলফা’

৯২তম অস্কারে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করবে ‘আলফা’ - ছবি : সংগৃহীত

জমা পড়েছে আটটি ছবি। সেখান থেকে প্রাথমিকভাবে তিনটি ছবি নির্বাচন করা হয়েছিলো। কিন্তু ৯২তম অস্কারে বাংলাদেশ থেকে যাবে মাত্র একটি ছবি। তাই তিন থেকে দুই বাদ দিয়ে রাখা হয়েছে একটি ছবি। নাম ‘আলফা’। ইমপ্রেস টেলিফিল্ম প্রযোজিত এই ছবিটি পরিচালনা করেছেন নাসির উদ্দিন ইউসুফ বাচ্চু। এই ছবিটি আকাডেমি অ্যাওয়ার্ডসের ‘বেস্ট ইন্টারন্যাশনাল ফিচার ফিল্ম’ বিভাগে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে।

শনিবার বাংলাদেশ ফেডারেশন ফিল্ম সোসাইটির চেয়ারম্যান হাবীবুর রহমান খান রাজধানীর একটি হোটেলে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে ‘আলফা’র অস্কারে যাওয়ার খবর নিশ্চিত করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে হাবীবুর রহমান খান ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ফিল্ম ফেডারেশনের সভাপতি অধ্যাপক আব্দুস সেলিম, পরিচালক সমিতির সভাপতি ও অস্কার এর বাছাই কমিটির সদস্য মুশফিকুর রহমান গুলজার, প্রযোজক সমিতির সভাপতি খোরশেদ আলম খসরুসহ অনেকে।

সংবাদ সম্মেলনে হাবীবুর রহমান খান জানান, এ বছর তিনটি চলচ্চিত্র জমা পড়ে। এগুলো হল মাসুম আজিজের ‘সনাতনের গল্প’, তৌকীর আহমেদের ‘ফাগুন হাওয়ায়’ এবং নাসির উদ্দিন ইউসুফের ‘আলফা’।

৯ সদস্যের অস্কার বাছাই কমিটি ‘আলফা’কে এ বছর বাংলাদেশকে থেকে অস্কারে পাঠানোর জন্য মনোনীত করেন। ছবিটির নাম ঘোষণার পর সংবাদ সম্মেলনে আমন্ত্রণ জানানো হয় ইমপ্রেস টেলিফিল্ম-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও আলফা ছবির প্রযোজক ফরিদুর রেজা সাগরকে।

২৬ এপ্রিল মুক্তি পেয়েছিল আলফা। ঢাকা শহরের একজন রিকশা পেইন্টারের জীবনের নানা বাঁকের গল্প এই ছবির প্রধান উপজীব্য। ছবির প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন নতুন অভিনয়শিল্পী আলমগীর কবির ও দোয়েল ম্যাশ। এছাড়াও রয়েছেন, মুস্তাফিজ নুর ইমরান এবং এটিএম শামসুজ্জামান প্রমুখ।

ইমপ্রেস টেলিফিল্ম প্রযোজিত ‘আলফা’ ছবিটির কাহিনী, চিত্রনাট্য করেছেন পরিচালক নিজেই। এটি সম্পাদনা করেছেন ক্যাথরিন মাসুদ।

২০০৩ সালে তারেক মাসুদ পরিচালিত মাটির ময়না ছবিটি সেরা বিদেশী ভাষার চলচ্চিত্র বিভাগে অস্কারে পাঠানো হয়েছিল। এরপর দুই বছর কোন বাংলাদেশী ছবি অস্কারের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেনি।

২০০৬ সাল থেকে প্রতি বছরই বাংলাদেশ থেকে একটি চলচ্চিত্র অস্কারের জন্য পাঠানো হচ্ছে। ২০০৬ থেকে ২০০৮ পর্যন্ত অস্কারে পাঠানো সিনেমা তিনটি হচ্ছে হুমায়ূন আহমেদের শ্যামল ছায়া, আবু সাইয়িদের নিরন্তর এবং গোলাম রাব্বানী বিপ্লবের স্বপ্নডানায়।

২০১১ সালে ফারুকীর ‘থার্ড পারসন সিঙ্গুলার নাম্বার’ এবং ২০১৪ সালে ‘টেলিভিশন’ সিনেমা অস্কারে বাংলাদেশের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করে। ২০১৮ সালে বাংলাদেশ থেকে অস্কারে পাঠানো হয়েছে মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর ‘ডুব’ চলচিত্রটি।

অ্যাকাডেমি অব মোশন পিকচার আর্টস অ্যান্ড সায়েন্সেসের আয়োজনে ২০২০ সালের ০৯ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে ৯২তম অস্কারের অ্যাওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠান। যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলেসে ক্যালিফোর্নিয়ার ডলবি থিয়েটারে ২৪টি শাখায় দেয়া হবে পুরস্কার। বেস্ট ইন্টারন্যাশনাল ফিচার ফিল্ম সেগুলোরই একটি।


আরো সংবাদ