২২ অক্টোবর ২০১৯, ৭ কার্তিক ১৪২৪, ১ সফর ১৪৩৯
জাতীয় পতাকা অবমাননা

খালেদা জিয়ার মামলার শুনানি ১ অক্টোবর

-

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জাতীয় পতাকা অবমাননা মামলার অভিযোগ গঠনের বিষয়ে শুনানি পিছিয়ে আগামী ১ অক্টোবর নতুন তারিখ ধার্য করা হয়েছে। গতকাল কেরানীগঞ্জে কেন্দ্রীয় কারাগারে নবনির্মিত ২ নম্বর ভবনে স্থাপিত অস্থায়ী আদালতে ঢাকা মহানগর হাকিম আসাদুজ্জামান নূর আসামি পক্ষের সময় আবেদন মঞ্জুর করে এ দিন ধার্য করেন।
গতকাল মঙ্গলবার আদালতে মামলাটির চার্জ গঠনবিষয়ে শুনানির দিন ধার্য ছিল। তবে খালেদা জিয়া অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন জানিয়ে শুনানি পেছানোর আবেদন করেন তার আইনজীবী জিয়া উদ্দিন জিয়া। আদালত আবেদন মঞ্জুর করে নতুন তারিখ ধার্য করেন।
২০১৬ সালের ৩ নভেম্বর ঢাকার মহানগর হাকিম আদালতে বাংলাদেশ জননেত্রী পরিষদের সভাপতি এ বি সিদ্দিকী বাদি হয়ে জাতীয় পতাকা অবমাননা মামলাটি দায়ের করেন। আদালত ঘটনার তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য তেজগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) নির্দেশ দেন। পরের বছর ২৫ ফেব্রুয়ারি অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেছে বলে প্রতিবেদন দাখিল করেন তেজগাঁও থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মশিউর রহমান। এ মামলায় ২০১৭ সালের ১২ নভেম্বর খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়। ২০১৮ সালের ৩১ জুলাই এ মামলায় ঢাকা মহানগর দায়রা জজ ইমরুল কায়েস খালেদা জিয়ার জামিন মঞ্জুর করেন।
উল্লেখ্য, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বর্তমানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এর আগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় তাকে কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার রায় ঘোষণার পর পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডে অবস্থিত পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে খালেদা জিয়াকে নেয়া হয়।

 


আরো সংবাদ