২১ নভেম্বর ২০১৯

অনিয়ন্ত্রিত অভিবাসনে বেকারত্ব বাড়ছে : আইনুন নিশাত

-

ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির প্রফেসর এমিরিটাস ড. আইনুন নিশাত বলেছেন, অনিয়ন্ত্রিত অভিবাসনের কারণেই মূলত দেশে বস্তির সংখ্যা বাড়ছে। অনেক এলাকায় জনগণের সাথে তাদের সংঘর্ষের ঘটনাও ঘটছে। এমনকি তাদের জন্য এলাকাগুলোর মূল ঐতিহ্য বদলে যাচ্ছে, বাড়ছে বেকারত্ব। এর ফলে এলাকার স্থানীয় জনগণ নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছেন। নিরাপত্তা নিশ্চিতের ক্ষেত্রে পানি, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, বাসস্থানের পাশাপাশি কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টিতে সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।
জলবায়ু পরিবর্তনের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে চতুর্থবারের মতো জাতীয় সম্মেলনের উদ্বোধনী দিনে ব্র্যাকের আলোচনা পর্বে তিনি এ কথা বলেন। গতকাল মঙ্গলবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে আইএবি মিলনায়তনে এই সম্মেলন শুরু হয়। চলবে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত।
ব্র্যাক আয়োজিত আলোচনা পর্বের বিষয় ছিলÑ ‘বাংলাদেশে অভিবাসীবান্ধব সহনশীল নগর তৈরিতে পাবলিক-প্রাইভেট-কমিউনিটি পার্টনারশিপ (পিপিসিপি)’।
অভিবাসীদের নিজেদের পরিমণ্ডলে স্বাচ্ছন্দ্যে বসবাসের নিশ্চয়তা প্রদানের ক্ষেত্রে নিম্নতম গুণগত মান নিশ্চিত করতে আরো বেশি গুরুত্ব দেয়ার আহ্বান জানান পরিবেশ অধিদফতরের জলবায়ু পরিবর্তন ও আন্তর্জাতিক সম্মেলনের পরিচালক মির্জা শওকত আলী। তিনি বলেন, সরকারি পর্যায়ে পলিসি প্রণয়নের ক্ষেত্রে কমিউনিটির অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা উচিত।
ব্র্যাকের নগর উন্নয়ন কর্মসূচি ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক পরিচালক ড. মো: লিয়াকত আলী জানান, অতি দারিদ্র্যের একটি মডেল নগরের ক্ষেত্রে প্রয়োগের পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে। নগর উন্নয়ন কর্মসূচির প্রধান হাসিনা মুশরফা বলেন, জলবায়ু সহনশীল নগর গঠনে বেসরকারি সংস্থাগুলোর পাশাপাশি সরকারি সংস্থাগুলোর সমান দায়িত্ব রয়েছে। নগরগুলো জলবায়ু সহনশীল করতে সব প্রকল্প এবং মডেলগুলোকে কমিউনিটির সহযোগিতায় গড়ে তোলার আহ্বান জানান।


আরো সংবাদ