১৫ নভেম্বর ২০১৯

ময়মনসিংহে মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রী শিগগিরই মেঘালয় থেকে বাংলাদেশে কয়লা রফতানি

-

ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে সৌহার্দ্য ও ব্যবসা-বাণিজ্য বাড়ানোর লক্ষ্যে উভয় দেশ কাজ করে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন ভারতের মেঘালয় রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী কনরাড কংগাল সাংমা। তিনি বলেন, ২০০৪ সাল থেকে আইনি জটিলতায় মেঘালয় থেকে বাংলাদেশে কয়লা রফতানি বন্ধ রয়েছে, যা শিগগিরই চালু করা হবে। দীর্ঘ দিন ধরে বন্ধ হয়ে যাওয়া ভারত-বাংলাদেশের মধ্যকার রেল ও সড়ক পথ আবার চালু করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।
গতকাল শুক্রবার দুপুরে ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশন ও দুর্গাবাড়ি মন্দির পরির্দশন শেষে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রী কনরাড সাংমা এসব কথা বলেন। বিকেলে সিটি করপোরেশনের শহীদ সাহাব উদ্দিন মিলনায়তনে আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় মুখ্যমন্ত্রী কনরাড সাংমা আরো বলেন, ময়মনসিংহ ও মেঘালয় রাজ্যের সীমান্তবর্তী এলাকায় পোলট্রি, ডেইরি ও মৎস্য খাতসহ ব্যবসা-বাণিজ্য সম্প্রসারণে কার্যকর পদক্ষেপ নেয়া হবে। হালুয়াঘাট ও ভারতের গাছুয়াপাড়া স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি-রফতানিসহ যাতায়াত সহজ করা হবে। এর পাশাপাশি শিগগিরই ময়মনসিংহের নারী উদ্যোক্তাদের মেঘালয়ে আমন্ত্রণ জানানো হবে।
মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রীকে স্বাগত জানিয়ে ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের মেয়র ইকরামুল হক টিটু বলেন, এই সফরের মধ্য দিয়ে শুধু দুই দেশের সম্পর্ক জোরদার নয়, দুই দেশের জনগণের সম্পর্কও সুদৃঢ় হবে। মেঘালয়ের সাথে সাংস্কৃতিক বিনিময় জোরদার হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।
এর আগে ভারতের মেঘালয় রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী কনরাড কংগাল সাংমা সড়ক পথে ঢাকা থেকে ময়মনসিংহে এলে সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে তাকে ফুলেল শুভেচ্ছাসহ দুই দেশের পতাকা সংবলিত ছবি ও নৌকা উপহার দেয়া হয়। পরে মেয়র ইকরামুল হক টিটুর সাথে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক এবং দুর্গাবাড়ি মন্দির পরিদর্শন ও সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সাথে সাক্ষাৎ করেন মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রী।
মেঘালয় সরকারের শিল্প ও বাণিজ্য সচিব মেবানশাই আর সিনরেম, পরিকল্পনা সচিব ড. বিজয় কুমার ডি, ভৌগোলিক ও খনিজসম্পদ সচিব ড. মানজুয়ান্তা, ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনার এল কৃষ্ণমূর্তি, সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন, ময়মনসিংহ চেম্বার অব কমার্সের পরিচালক শংকর সাহা ও সালমান ওমরসহ সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলর, শিল্পপতি, ব্যবসায়ী ও সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

 


আরো সংবাদ