১৯ আগস্ট ২০১৯

জাতীয় পরিচয়পত্র যাচাইয়ের নতুন গেটওয়ে

-

আগে কারো জাতীয় পরিচয়পত্র আসল নাকি নকল, তা পরীক্ষা করতে সময় লাগত তিন থেকে পাঁচ কর্মদিবস। এতে ভোগান্তির পাশাপাশি জালিয়াতির সুযোগ ছিল। এ সমস্যা দূরীকরণে সহজে এবং দ্রুত জাতীয় পরিচয়পত্র যাচাইয়ের গেটওয়ে সার্ভার ‘পরিচয়’ (ঢ়ড়ৎরপযড়ু.মড়া.নফ) চালু করছে সরকার। গতকাল তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও প্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় এই সার্ভিসের উদ্বোধন করেছেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন তথ্য ও প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক।
পরিচয় হচ্ছে একটি গেটওয়ে সার্ভার, যা নির্বাচন কমিশনের জাতীয় ডাটাবেজের সাথে সংযুক্ত। এটি এমন একটি এপ্লিকেশন প্রোগ্রামিং যা সরকারি, বেসরকারি বা ব্যক্তিগত যে কোনো সংস্থা তার গ্রাহকদের জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) যাচাই করে নিমিষেই সেবা দিতে পারবে। এনআইডি যাচাই করার জন্য এখন থেকে আর আগের মতো তিন-পাঁচ কর্মদিবস অপেক্ষা করতে হবে না।
বর্তমান প্রক্রিয়ায়, সরকারের বিভিন্ন সংস্থা নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইটে লগইন করে জাতীয় পরিচয়পত্রের তথ্য ম্যানুয়ালি যাচাই করে থাকে। আবার অনেক সংস্থা এনআইডি যাচাইও করে না, কারণ নির্বাচন কমিশনের এনআইডি ডাটাবেজের অ্যাক্সেস তাদের নেই। কিন্তু ‘পরিচয় গেটওয়ে’ ব্যবহার করলে জাতীয় আইডি যাচাই করার জন্য তেমনটা আর দরকার হবে না। যেকোনো প্রতিষ্ঠান সফ্টওয়্যারের মাধ্যমে ‘পরিচয় গেটওয়ে’ সার্ভারের সাথে সংযোগ স্থাপন করলে জাতীয় আইডি শনাক্তের ফলাফল সাথে সাথেই অটোমেটিকভাবে পেয়ে যাবে।
আইসিটি মন্ত্রণালয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, পরিচয় দেশের জনগণের কর্মকাণ্ডে নতুন গতি আনবে। ব্যাংক অ্যাকাউন্ট বা ডিজিটাল ওয়ালেট অ্যাকাউন্ট খোলা বা যে কাজগুলোতে জাতীয় পরিচয়পত্র নিবন্ধনের প্রয়োজনে এটা খুব উপকারী হবে। নিজের নাম নিবন্ধন করে যাচাইয়ের জন্য আর চার-পাঁচদিন অপেক্ষা করতে হবে না, ভোগান্তিও পোহাতে হবে না।
এই গেটওয়েটি সাথে সাথেই জাল আইডিগুলো শনাক্ত করে জালিয়াতি প্রতিরোধেও সহায়তা করবে এবং পরিষেবাগুলোকে আরো নিরাপদ করবে।


আরো সংবাদ