২০ আগস্ট ২০১৯

গেইলের শেষ ঝড়

গেইলের শেষ ঝড় - ছবি : সংগৃহীত

বিদায়ী ম্যাচেও বিধ্বংসী ব্যাটিং উপহার দিলেন ক্রিস গেইল। ৩০ বলে হাফ-সেঞ্চুরি করেন তিনি। শেষ পর্যন্ত ৭২ রান করে খলিল আহমেদের বলে বিরাট কোহলির হাতে ধরা পড়তেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ‘গেইল অধ্যায়ের’ পরিসমাপ্তি ঘটে। ১৯৯৯ সালে ভারতের বিরুদ্ধেই একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচ দিয়ে যাত্রা শুরু করেছিলেন গেইল। সেই বৃত্ত তিনি পূর্ণ করলেন ভারতের বিরুদ্ধেই। প্রায় দু’দশকের কেরিয়ারে ক্রিকেটকে যেমন তিনি অনেক দিয়েছেন, তেমনি তার প্রাপ্তিও পূর্ণ। ৩০১টি ওয়ান ডে আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন। ব্যাট করেছেন ২৯৪টি ইনিংস। মোট রান ১০৪৮০। সর্বাধিক রান অপরাজিত ২১৫। ব্যাটিং গড় ৩৭.৮৩। ২৫টি শতরানের পাশাপাশি ৫৪টি অর্ধশতরানও হাঁকিয়েছেন তিনি।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে একদিনের ক্রিকেটে সর্বাধিক রানের মালিক এখন গেইল (১০৪৮০)। চলতি সিরিজেই তিনি কিংবদন্তি ব্রায়ান লারাকে (১০৪০৫) পিছনে ফেলেছেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে সবচেয়ে বেশি ওয়ান ডে ম্যাচ খেলেছেন গেইলই (৩০১)। টি-২০ সবচেয়ে বেশি রানও তার ঝুলিতে (১৬২৭)।ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে সর্বাধিক ছক্কাও হাঁকিয়েছেন ‘ইউনিভার্স বস’। এখানেই শেষ নয়, চলতি ক্যালেন্ডার বর্ষে সবচেয়ে বেশি ছক্কা হাঁকিয়েছে তিনি (৫৬)।

বিশ্বকাপের পর থেকেই ক্রিস গেইলের অবসর নিয়ে জোর জল্পনা চলছিল। রাখঢাক না করেই ক্যারিবিয়ান দৈত্য জানিয়ে দিয়েছিলেন, নিজের শহরে ভারতের বিরুদ্ধে টেস্ট খেলেই তিনি অবসর নেবেন। কিন্তু ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ড গেইলের সেই অনুরোধ রাখেনি। টেস্ট দলে জায়গা না পাওয়ায় স্পষ্ট হয়ে গিয়েছিল, ভারতের বিরুদ্ধে ওয়ান ডে সিরিজের শেষ ম্যাচই হতে চলেছে ক্রিস গেইলের বিদায়ী মঞ্চ।

বুধবার ভারতের বিরুদ্ধে শেষবার ব্যাট করতে নামার আগে গেইল মনস্থির করে নিয়েছিলেন, বিদায় বেলায় দাগ রেখে যাবেন। গোটা ক্রিকেট দুনিয়া তাকে ‘বাউন্ডারি’ ম্যান হিসাবেই চেনে। সেভাবেই তিনি ইনিংস শুরু করেন। বৃষ্টির কারণে কিছুক্ষণ খেলা বন্ধ থাকলেও গেইল-ঝড় কিন্তু থামানো যায়নি। ৭২ রান তিনি করেছেন আটটি বাউন্ডারি ও পাঁচটি ওভার বাউন্ডারি হাঁকিয়ে। ওপেনিং জুটিতে এভিন লুইসের সঙ্গে ৬৯ বলে ১১৫ রান যোগ করেন গেইল। একটা সময় ওয়েস্ট ইন্ডিজের রান রেট ছিল এগারোর উপর। গেইলের ব্যাটিং তাণ্ডব রীতিমতো চিন্তায় ফেলে দিয়েছিল ভারত অধিনায়ককে। কারণ, খলিলের বাউন্সারে এক হাতে ছক্কা হাঁকান ক্যারিবিয়ান দৈত্য।

গেইলের ব্যাটিং দেখতে দেখতে মনে হচ্ছিল, তিনি সেঞ্চুরি করেই মাঠ ছাড়বেন। কিন্তু দ্বাদশ ওভারে খলিল আহমেদের পঞ্চম বলে মিড অফে কোহলির হাতে সহজ ক্যাচ দিয়ে সেই আশায় জল ঢেলে দেন তিনি। তবে গেইল আউট হওয়ার পর ভারতীয় ক্রিকেটাররা একে একে তাকে বিদায়ী শুভেচ্ছা জানান। ক্যাপ্টেন বিরাট কোহলির নেতৃত্বে তিনি আইপিএলে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুতে খেলেছেন। দু’জনের সম্পর্ক খুবই ভালো। বিদায়লগ্নে গেইলের সঙ্গে ‘চেস্ট বাম্ব’ করে শুভেচ্ছা জানান বিরাট। ব্যাটের হাতলে হেলমেট ঝুলিয়ে দর্শকদের অভিনন্দন কুড়োতে কুড়োতে ড্রেসিংরুমে ফিরে যান ‘ইউনিভার্স বস’ ক্রিস গেইল।


আরো সংবাদ