১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯

৬৭ রানে ঘায়েল ইংলিশরা

দ্বিতীয় টেস্টে বাক-বিতণ্ডে অ্যাশেজের তৃতীয় টেস্ট হয়ে উঠে উত্তপ্ত। স্মিথকে নিয়ে তোপের মুখে থাকা জোফরা আর্চার হয়ে ওঠেন আরো অগ্রাসী। তার বোলিং তোপেই হেডেংলিতে প্রমম ইনিংসে ১৭৯ রানে গুটিয়ে যায় অস্ট্রেলিয়া।

কিন্তু ইংলিশ অ্যাকশনের পাল্ট জবাব দিতে দেরি করেনি অজিরাও। জস হেজেলউড, পেট কামিন্স ও প্যাটিনসনের আগুনঝরা বোলিংয়ে ২৭.৫ ওভারে ৬৭ রানেই প্রথম ইনিংসে অল আউট হয়ে যায় ইংল্যান্ড।

অজিদের বোলিং দেখে মনে হলো, আর্চার-ব্রড-ওকসরা যদি হয় ‘সের’। হেজেলউড, কামিন্স, প্যাটিনসনরা ‘সোয়া সের’!

প্রথম ইনিংসে একমাত্র জো ডেনলি (১২ রান) ছাড়া আর কোনো ইংলিশ ব্যাটসম্যান দুই অঙ্কের ফিগারে পৌঁছাতে দেননি অস্ট্রেলিয় বোলাররা।

অজি বোলারদের মধ্যে হেজেলউড ৫টি, কামিন্স ৩টি ও প্যাটিনসন ২টি উইকেট শিকার করেন।

এর আগে অস্ট্রেলিয়ার প্রথম ইনিংস...

ইংল্যান্ডের ডান-হাতি পেসার জোফরা আর্চারের আগুন ঝড়ানো বোলিং-এ অ্যাশেজ সিরিজের তৃতীয় টেস্টের প্রথম দিনই ১৭৯ রানে অলআউট হয়েছে সফরকারী অস্ট্রেলিয়া। ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় টেস্ট খেলতে নেমে বল হাতে ১৭ দশমিক ১ ওভার বল করে ৪৫ রানে ৬ উইকেট নেন আর্চার। লর্ডসে গত ম্যাচ দিয়ে টেস্ট অভিষেক হয়েছিলো আর্চারের।

লিডসে বৃষ্টিবিঘিœত সিরিজের তৃতীয় টেস্টে টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিং বেছে নেয় ইংল্যান্ড। ব্যাট হাতে নেমে ২৫ রানের মধ্যে ২ উইকেট হারিয়ে বসে অস্ট্রেলিয়া। ওপেনার ক্রিস হ্যারিস ও তিন নম্বরে নামা উসমান খাজা ৮ রান করে ফিরেন। হ্যারিসকে শিকার করেন আর্চার। আর খাজাকে আউট করেন ব্রড।

শুরুতে ২ উইকেট হারানোর ক্ষত দ্রুতই ভুলিয়ে দেন আরেক ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার ও মার্নাস লাবুশেন। রানের ক্ষুধায় থাকা ডেভিড ওয়ার্নারের সাথে ১১১ রানের জুটি গড়েন লাবুশেন। ৭টি চারে ৬১ রান করা ওয়ার্নারকে তুলে নিয়ে এই জুটিতে ভাঙ্গন ধরান আর্চার। ফলে ১৩৬ রানে তৃতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হন ওয়ার্নার।

এরপর অস্ট্রেলিয়ার মিডল-অর্ডারে তিন ব্যাটসম্যান ট্রাভিস হেড-ম্যাথু ওয়েড-টিম পাইনকে দ্রুত তুলে নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার চাপ বাড়িয়ে দেন ব্রড-আর্চার-ওকস। হেড-ওয়েড শুন্য রানে ও পাইন ১১ রান করে ফিরেন। ফলে দ্রুতই গুটিয়ে যাবার শংকায় পড়ে অস্ট্রেলিয়া। আর সেই কাজটি করে ফেলেন আর্চার। অস্ট্রেলিয়ার শেষ তিন ব্যাটসম্যানকে বিদায় দিয়ে প্রতিপক্ষকে ১৭৯ রানে গুটিয়ে দেন আর্চার। মাঝে লাবুশেনকে ৭৪ রানে শিকার করে আর্চারের কাজটি সহজ করে দেন বেন স্টোকস। ১০টি চারে ১২৯ বলে নিজের ইনিংসটি সাজান লাবুশানে।


আরো সংবাদ