১৯ অক্টোবর ২০১৯

আজ আফগানিস্তানের মুখোমুখি হচ্ছে বাংলাদেশ

-

ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে আজ রোববার আফগানিস্তানের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় ম্যাচটি শুরু হবে।

এর আগে নিজেদের প্রথম ম্যাচে জিম্বাবুয়েকে হারিয়েছে বাংলাদেশ ও আফগানিস্তান। ৩ উইকেটে জিম্বাবুয়েকে হারিয়েছে টাইগাররা। আর ২৮ রানে জিতেছে আফগানরা। প্রথম ম্যাচের এই জয়ের কারণে আত্মবিশ্বাসী দুটি দলই। তবে সম্প্রতিই যেহেতু নিজেদের মাঠে আফগানিস্তানের কাছে একমাত্র টেস্টে ২২৪ রানের বড় ব্যবধানে বাংলাদেশ হেরেছে, তাই আত্মবিশ্বাসের পাল্লাটা একটু ভারী আফগানদের। এছাড়া জিম্বাবুয়ের বিপক্ষেও অগোছালো ছিল বাংলাদেশ।

জিম্বাবুয়ের দেয়া ১৪৪ রানের টার্গেট তেমন কঠিন ছিল না। জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে বিপর্যয়ে পড়ে সাকিব বাহিনী। যে মাঠের সবুজ ঘাসের সাথে সখ্যতা সেখানে এলোমেলো হয়ে যায় টাইগারবাহিনী। দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান লিটন দাস এবং সৌম্য সরকারের শুরুটা ভালোভাবে এমন আশা করা নিশ্চয় সাকিবের জন্য অতিরিক্ত নয়। কিন্তু তা হলো না। জিম্বাবুয়ের সাদামাটা বোলিংয়ের বিপক্ষে ছন্নছাড়া ব্যাটিং উপহার দিলো তারা। দলীয় ২৬ রানে লিটন দাসের চলে যাওয়া। তারপর সৌম্য। এরপর সাজঘরে ফিরে যাওয়ার প্রতিযোগিতায় মেতে ওঠা। একে একে সাকিব, মুশফিক, মাহমুদুল্লাহ, সাব্বির এই মিছিলে শামিল হলেন। পরাজয়ের আশঙ্কায় আবর্তিত হতে থাকে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের গর্বের স্থান হচ্ছে ব্যাটিং। বিশ্বকাপে এই ব্যাটিংয়ের ঝলক দেখা গেছে দক্ষিণ আফ্রিকা, নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও আফগানিস্তানের বিপক্ষে। শ্রীলঙ্কা সফরে গিয়ে ব্যাটসম্যানরা পেছনের দিকে হাঁটতে শুরু করলেন। যারা ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে দাপট দেখিয়েছেন তারা কেমন যেন এলোমেলো হয়ে গেলেন। সেই রেশ এখনো চলছে। দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবাল দলে নেই। কিন্তু অন্যরা তো রয়েছেন। তারা কেন পারছেন না। দীর্ঘদিনের অভিজ্ঞতা কোনো কাজেই আসছে না। জিম্বাবুয়ের বোলাররা এমন কোনো আহামরি নামীদামি নন। তাদের বিরুদ্ধে খেলতে যা করেছে তাতে লজ্জা পাওয়া ছাড়া ভিন্ন কোনো পথ নেই।

ব্যাটসম্যানদের ঘুরে দাঁড়াতে হবে। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে জয়টি বাংলাদেশের আত্মবিশ্বাস বৃদ্ধিতে বিশেষ কাজ করবে। আফিফ এবং মোসাদ্দেকের ব্যাটিংশৈলী বাকিদের প্রেরণা জোগাবে। টি-২০ ক্রিকেটে ব্যাটসম্যানদের জ্বলে ওঠাটা একটি দলের জয়ের পেছনে প্রধান ভূমিকা রাখে। এই বিষয়টি মাথায় রেখে সব শঙ্কাকে পদদলিত করে উইলো হাতে কারিশমা দেখাতে হবে।

টি-২০তে দুর্দান্ত দল আফগানিস্তান। ফলে তাদেরকে সহজভাবে নেয়ার কোনো সুযোগ নেই বাংলাদেশের। এ ছাড়া একমাত্র টেস্টে হেরে যাওয়ার বেদনা তো রয়েছেই। তাই আফগানদের হারিয়ে মধুর প্রতিশোধ নিবে সাকিব বাহিনী- এমনটাই আশা করছে সমর্থকরা।


আরো সংবাদ