২১ নভেম্বর ২০১৯

২৫-৩০ রান বেশি দরকার ছিল : মাহমুদুল্লাহ

বাংলাদেশের ব্যাটিং দেখেই শুরুতে বোঝা গিয়েছে রাজকোটে ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন মাঠ ব্যাটিং উইকেট সহয়ক। ২০০ রান পুঁজি না হলে লড়াই করা কঠিন হবে। দ্বিতীয় ইনিংসে সেটিই ফুটে উঠল স্পষ্ট হয়ে। ১৫৩ রানের পুঁজি নিয়ে লড়াই করতেও পারল না বাংলাদেশ। ম্যাচ শেষে অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহর কণ্ঠে শোনা গেল অনুমিত আক্ষেপ, প্রত্যাশার চেয়ে অনেক কম ছিল বাংলাদেশের রান।

রাজকোটের উইকেট বরাবরই ব্যাটিং সহায়ক বলে পরিচিত। ভারতের ঘরোয়া ক্রিকেটে এখানে রান হয় অনেক। ভারত-বাংলাদেশ ম্যাচের আগে এখানকার দুটি আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতেও ছিল রান বন্যা। সেই দুই ম্যাচে আগে ব্যাট করা দল ২০ ওভারে তুলেছিল ২০১ ও ১৯৬।

কিন্তু বৃহস্পতিবার এখানেই টস হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশ করতে পারে মাত্র ১৫৩ রান। ব্যাটসম্যানদের সেই ব্যর্থতার পর বোলাররাও পারেননি অভাবনীয় কিছু করে ম্যাচ জমিয়ে তুলতে। বরং রোহিত শর্মার ৪৩ বলে ৮৫ রানের দুর্দান্ত ইনিংসে ভারত জিতে গেছে অনায়াসেই।

ম্যাচ শেষে বাংলাদেশ অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ বললেন নিজেদের ব্যর্থতার কথা, কৃতিত্ব দিলেন প্রতিপক্ষকেও।

“ব্যাটিংয়ের জন্য খুব ভালো উইকেট ছিল। ২৫ থেকে ৩০ রান কম ছিল আমাদের। ১৮০ করতে পারলে হয়ত প্রতিপক্ষকে আটকানো যেত।”

“তবে পাশাপাশি রোহিত ও শিখর যেভাবে শুরু করেছে, সেটিকেও কৃতিত্ব দিতে হবে। শুরুটা অমন হয়েছে বলেই মোমেন্টাম ওদের পক্ষে চলে গেছে।”

১০ নভেম্বর সিরিজের শেষ টি-টোয়েন্টিতে মুখোমুখি হবে দল দুদল। সেই ম্যাচটি হবে সিরিজ নির্ধারণী। মাহমুদুল্লাহ বাহিনীর সামনে সুযোগ রয়েছে ইতিহাসের নতুন অধ্যায়ে নাম লিখানোরও।


আরো সংবাদ