২০ নভেম্বর ২০১৯

মালান-মরগানের তাণ্ডবের পর ইংল্যান্ডের বড় জয়

ডেভিড মালান ও ইয়ন মরগানের ব্যাটিং তাণ্ডবে নিউজিল্যান্ডকে উড়িয়ে দিয়েছে ইংল্যান্ড। পাঁচ ম্যাচ সিরিজের চতুর্থ টি-টোয়েন্টিতে স্বাগতিকদের ৭৬ রানে হারিয়ে সিরিজে সমতায় ফিরেছে সফরকারীরা।

টস  হেরে আগে ব্যাট করে ইংলিশদের দেয়া ২৪২ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ১৬.৫ ওভারে সবকটি উইকেট হারিয়ে ১৬৫ রান করতে সক্ষম হয় কিউইরা। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ১৫ বলে ৩৯ রান করেন টিম সাউদি।

এর আগে ডেভিড মালানের অপরাজিত ৫১ বলে ১০৩ ও ইয়ন মরগানের ৪১ বলে ৯১ রানের ঝড়ো ইনিংসে ২০ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ২৪১ রান সংগ্রহ করে নিউজিল্যান্ড।

নেপিয়ারে মুদ্রা নিক্ষেপে টস জিতে ইংল্যান্ডকে আগে ব্যাটিয়ের আমন্ত্রণ জানান কিউই অধিনায়ক টিম সাউদি।

টস হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে ১৬ রানের মাথায় জনি বায়েরস্টোর উইকেট হারায় ইংল্যান্ড। ব্যক্তিগত ৮ রান করেন ফেরেন এই ওপেনার। ৫৮ রানের মাথায় ফেরেন আরেক ওপেনার টম ব্যান্টন। ২০ বলে ৩১ রান আসে তার ব্যাট থেকে।

দুই ওপেনার ফিরে গেলে শুরু হয় আসল তাণ্ডব। কিউই বোলারদের উপর দিয়ে ঘূর্ণি বইয়ে দেন ডেভিড মালান ও ইয়ন মরগান। নেপিয়ারে ঝরান ছাক্কা-চার বৃষ্টি। তৃতীয় উইকেটে ১৮২ জুটি গড়েন দুজনে। ৪১ বলে ৯১ রান করে সাজঘরে ফেরেন মরগান। ৭টি ছক্কা ও সমানসংখ্যক চারে ইনিংসটি সাজান। আক্ষেপ থেকে গেলো সেঞ্চুরির। মরগান শতক না পেলেও ঠিকই নিজের টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে প্রথম শতক তুলে নিলেন মালান। ৫১ বলে ১০৩ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেন এই হার্ডহিটার। ৯ চার ও ৬ ছক্কায় সাজান ইনিংসটি। দুই বিধ্বংসীর ব্যাটে তিন উইকেট হারিয়ে ২৪১ রানের বিশাল পুঁজি পায় ইংল্যান্ড।

কিউই বোলারদের মধ্যে মিচেল স্যান্টনার ২টি ও সাউদি একটি উইকেট শিকার করেন।

২৪১ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ১৬৫ রানেই গুঁটিয়ে যায় নিউজিল্যান্ড। টিম সাউদি ১৫ বলে ৩৯, কলিন মুনরো ৩০ ও মর্টিন গপটিল ২৭ রান ছাড়া আর কোনো ব্যাটসম্যান বড় ইনিংস খেলতে পারেননি। যার ফলে হারও এড়ানো সম্ভব হয়নি। ১৬.৫ ওভারে সবকটি উইকেট হারিয়ে ১৬৫ রানে ইংস থাকে নিউ‌জিল্যান্ডের।

ইংলিশ বোলারদের মধ্যে ম্যাথু পার্কিনসন ৪টি, ক্রিস জর্দান ২টি, সাম কারান, টক মারান ও পাত্রিক ব্রাউন একটি করে উইকেট শিকার করেন।


আরো সংবাদ