১০ ডিসেম্বর ২০১৯

অবশেষে জয় খরা কাটলো ব্রাজিলের

আবুধাবিতে মোহাম্মদ বিন জায়েদ স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার প্রীতি ম্যাচে ৩-০ গোলে জিতেছে তিতের দল। লুকাস পাকুয়েতার গোলে ব্রাজিল এগিয়ে যাওয়ার পর ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ফিলিপে কৌতিনিহো। দ্বিতীয়ার্ধে তৃতীয় গোলটি করেন দানিলো।

কোপা আমেরিকা জয়ের পর যেন জিততে ভুলে গিয়েছিল ব্রাজিল। টানা ব্যর্থতার পর অবশেষে মিলল সাফল্যের দেখা। দক্ষিণ কোরিয়ার বিপক্ষে দাপুটে ফুটবল খেলে তুলে নিল কাঙ্ক্ষিত জয়।

টানা পাঁচ ম্যাচে জয়শূন্য থাকার পর অবশেষে জয়ের স্বাদ পেল ব্রাজিল। মাঝের সময়ে তারা হেরেছিল দুটি, ড্র করেছিল তিনটিতে। সবশেষ গত শুক্রবার চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আর্জেন্টিনার কাছে ১-০ গোলে হেরেছিল তারা।

ম্যাচের শুরু থেকে বল দখলের পাশাপাশি আক্রমণেও আধিপত্য করা ব্রাজিল গোলের দেখা পায় নবম মিনিটে। বাঁ দিক থেকে রেনান লোদির ক্রসে হেডে ঠিকানা খুঁজে নেন লুকাস পাকুয়েতা।

৩৬তম মিনিটে ডি-বক্সের ঠিক বাইরে থেকে দারুণ এক ফ্রি-কিকে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন কৌতিনিহো।

৪২তম মিনিটে এই মিডফিল্ডারের ভুলে উল্টো গোল খেতে বসেছিল ব্রাজিল। প্রতিপক্ষের একটি আক্রমণ ফেরাতে গিয়ে নিজের পোস্টে বল মেরে বসেন তিনি। দ্বিতীয় প্রচেষ্টায় অবশ্য বিপদমুক্ত করেন।

৬০তম মিনিটে ব্যবধান আরও বাড়িয়ে জয়-পরাজয়ের হিসেব অনেকটাই শেষ করে দেন দানিলো। বাঁ দিক আতলেটিকো মাদ্রিদের ডিফেন্ডার লোদির রক্ষণচেরা পাস ডি-বক্সের ঠিক বাইরে পেয়ে ডান পায়ের বুলেট গতির শটে গোলটি করেন জুভেন্টাস ডিফেন্ডার। গোলরক্ষক ঝাঁপিয়ে বলে হাত লাগালেও রুখতে পারেননি।

পাল্টা আক্রমণে মাঝে মধ্যেই ব্রাজিল রক্ষণে ভীতি ছড়াচ্ছিল দক্ষিণ কোরিয়া। মাঝে প্রতিপক্ষের রক্ষণে বেশ চাপ বাড়ায় তারা। কিন্তু সাফল্য মেলেনি।

৭৫তম মিনিটে সন হিয়ুং মিনের জোরালো শটে শেষ মুহূর্তে বাঁক খেয়ে বল জালে ঢুকতে যাচ্ছিল, গোলরক্ষক আলিসন পাঞ্চ করে ফেরালে বড় জয়ের আনন্দে মাঠ ছাড়ে পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।


আরো সংবাদ