২৩ আগস্ট ২০১৯

জাপার ঘরোয়া বিবাদ দেবর-ভাবিই মিটিয়ে ফেলবে, আশা ওবায়দুল কাদেরের

জাপার ঘরোয়া বিবাদ দেবর-ভাবিই মিটিয়ে ফেলবে, আশা ওবায়দুল কাদেরের - সংগৃহীত

সংসদের প্রধান বিরোধী দল জাতীয় পার্টির নেতৃত্ব নিয়ে যে জটিলতা তৈরি হয়েছে তা ‘দেবর-ভাবি’ আলাপ আলোচনার মাধ্যমে মীমাংসা করবেন বলে আশা প্রকাশ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, জাতীয় পার্টি একটি রাজনৈতিক দল- আর এটা তাদের নিজেদের ব্যাপার। বেগম রওশন এরশাদ ও জিএম কাদের তারা তো দেবর-ভাবি। তাদের ঘরোয়া বিবাদ তারা মীমাংসা করে ফেলুক, এটাই আমরা আশা করি।

বুধবার সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি আশা প্রকাশ করেন। ওবায়দুল কাদের বলেন, আমি আশা করি তারা নিজেদের অভ্যন্তরীণ সমস্যার সমাধান নিজেরাই বসে আলাপ আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করবেন। তিনি বলেন, জাতীয় পার্টি একটি রাজনৈতিক দল, সংসদে বিরোধীদলের ভূমিকা পালন করছে। বিরোধী দলে বিরোধ হোক- আওয়ামী লীগ তা চায় না। দলের অভ্যন্তরে টানাপড়েন থাকতে পারে, আবার এর সমাধানও আছে। তাদের ঘরোয়া বিবাদ তারা মীমাংসা করে ফেলুক, এটাই আমরা আশা করি।

গত এপ্রিলে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ অসুস্থ অবস্থায় নিজের ভাই জিএম কাদেরকে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান করেন। গত ১৪ জুলাই এরশাদের মৃত্যুর পর এক সংবাদ সম্মেলনে পার্টির চেয়ারম্যান হিসেবে জি এম কাদেরের নাম ঘোষণা করা হয়। দলের মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গাঁ সেদিন ওই ঘোষণা দিয়ে বলেন, মৃত্যুর আগে এরশাদই এ সিদ্ধান্ত দিয়ে গেছেন। কিন্তু এরশাদের স্ত্রী, পার্টির সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান রওশন তা মানতে রাজি নন। এ সিদ্ধান্তের বিরোধীতা করে সোমবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে রওশন বলেন, জি এম কাদেরকে চেয়ারম্যান ঘোষণা করার আগে দলের প্রেসিডিয়াম সদস্যদের মতামত নেওয়া হয়নি। ফলে জি এম কাদের এখনও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানই আছেন।

এদিকে রওশনের ওই বিবৃতি ‘বিশ্বাসযোগ্য ও গ্রহণযোগ্য নয়’ মন্তব্য করে মঙ্গলবার জিএম কাদের সাংবাদিকদের বলেন, হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ আমাদের পরিবারে পিতৃতুল্য ছিলেন, সেইভাবেই বেগম রওশন এরশাদ আমাদের মায়ের মত। এরশাদের নির্দেশনায় ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হিসেবে কাজ করেছি। এখনও পল্লীবন্ধুর নির্দেশনাতেই চেয়ারম্যান হিসেবে কাজ করছি। গঠনতন্ত্রের ব্যত্যয় ঘটনার বিষয়ে জি এম কাদের বলেন, জাতীয় পার্টির নেতৃবৃন্দ গঠনতন্ত্র অনুসরণ করেই চেয়ারম্যান ঘোষণা করেছেন। তারা যে নামেই সম্বোধন করবে, তাতে কোনো সমস্যা নেই। জাতীয় পার্টিতে কাজ করাটাই আসল কথা। কোনো সমস্যা থাকলে আমরা আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে সব সমস্যার সমাধান করব।

 


আরো সংবাদ