২২ নভেম্বর ২০১৯

জা পা নে র রূ প ক থা বুড়ো বানরটি

-

(গত দিনের পর)
লোকটি একদিন ভাবে, নাহ্ আর হবে না। এই বুড়ো বানর দিয়ে কাজ হবে না আমার। অন্য কোনো পেশা বেছে নিতে হবে। কালই কসাইকে আসতে বলি। বানরটি বিক্রি করে দিলে কিছু পয়সা তো আসবে।
সেদিন তড়িঘড়ি করে বাড়ি ফেরে সে। তখন সন্ধ্যে প্রায় ঘনিয়ে এসেছে। মহাবিরক্তি চোখেমুখে তার। কারণ, আয় রোজগার তেমন হয়নি আজ। বাড়ি এসে স্ত্রীকে বলে, এই বানর দিয়ে আর পোষাবে না আমার। আগের মতো খেলা দেখাতে পারে না। কাল কসাইকে আসতে বলেছি। বিক্রি করে দেবো এটাকে। নাচতে পারে না, খেলা দেখাতে পারে না। অকম্মার ঢেঁকি। কী হবে এমন বুড়ো বানর পুষে? শুধু
পেটপুরে খাওয়া চাই তার। বিক্রি করে দিলে কিছু পয়সা তো আসবে ঘরে।
লোকটির কথায় স্ত্রীর মন খারাপ হয়ে যায়। আহারে বেচারা! এতটা কাল তাকে পেলে-পুষে গড়ে তুলেছি। নাচ শিখিয়েছি, খেলা শিখিয়েছি। আর এখন কিনা বিক্রি করে দেবে। কসাই এসে নিয়ে যাবে বানরটাকে। জবাই করে মাংস বিক্রি করবে। রোস্ট করে খাবে সবাই! আহ্ বেচারা। (চলবে)

 


আরো সংবাদ

দেশে কিছু ঘটলেই তার ওপর ভর করে বিএনপি : কাদের সাউথ এশিয়ান ল’ ইয়ার্স ফোরামের সুপ্রিম কোর্ট চাপ্টারের পরিচিতি সভা শ্রমিক ইউনিয়ন চাঁদা তুলে আঙুল ফুলে কলাগাছ ইলিয়াস কাঞ্চনের বিরুদ্ধে বিদ্বেষমূলক প্রচারণায় আসকের নিন্দা সোনারগাঁওয়ে শুটারগানসহ ১ ব্যক্তি আটক রাজধানীতে যুবলীগ নেতাকে তুলে নেয়ার অভিযোগ যৌন হয়রানির অভিযোগে টেনিস ফেডারেশনের সেক্রেটারি বহিষ্কার খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য প্রয়োজন ‘ডু অর ডাই’ আন্দোলন : গয়েশ্বর রায় পূবাইলে তারেক রহমানের জন্মদিন উদযাপিত চার জেলার ৮ কারখানাকে জরিমানা পরিবেশ অধিদফতরের দি স্টুডেন্টস ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন ঢাকার ২০১৯ সালের বৃত্তি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত

সকল