ব্যবস্থাপনা পরিবর্তনের খবরে উল্লম্ফন সিঅ্যান্ডএ টেক্সটাইলে

বেশির ভাগ কোম্পানির দরপতনেও পুঁজিবাজার সূচকের উন্নতি
অর্থনৈতিক প্রতিবেদক

লেনদেন হওয়া বেশির ভাগ কোম্পানির দরপতন সত্ত্বেও উন্নতি ঘটেছে পুঁজিবাজার সূচকের। গতকাল দেশের দুই পুঁজিবাজারেই একই চিত্র দেখা যায়। ব্যাংকিং খাতের বেশ কয়েকটি কোম্পানির মূল্য বৃদ্ধিই উভয় পুঁজিবাজারের সূচকের উন্নতিতে প্রভাব ফেলে। অনেকটা শ্লথ গতিতে লেনদেন শুরু করা দুই পুঁজিবাজারে লেনদেনের মাঝামাঝি পর্যায়ে সূচকের বড় ধরনের উন্নতি ঘটলেও দিন শেষে তার পুরোটা ধরে রাখতে পারেনি বাজারগুলো। তবে এ সময় উভয় বাজারেই লেনদেনের কমবেশি উন্নতি ঘটে।
প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক ডিএসইএক্স গতকাল ১১ দশমিক ৬৭ পয়েন্ট বৃদ্ধি পায়। বৃহস্পতিবার সপ্তাহের শেষ কর্মদিবসে পাঁচ হাজার ৮৯০ দশমিক ১২ পয়েন্ট থেকে লেনদেন শুরু করা সূচকটি দিনশেষে ৫ হাজার ৯০১ দশমিক ৮০ পয়েন্টে স্থির হয়। আর এভাবে তিন দিন পর আবারো ৫ হাাজর ৯০০ পয়েন্ট ছাড়ায় সূচকটি। বাজারটির অপর দুই সূচক ডিএসই-৩০ ও শরিয়াহ সূচকের উন্নতি ঘটে যথাক্রমে ৪ দশমিক ৫০ ও ৩ দশমিক ২৮ পয়েন্ট।
দেশের দ্বিতীয় পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সার্বিক মূল্যসূচক ও সিএসসিএক্স সূচকের উন্নতি ঘটে যথাক্রমে ৪০ দশমিক ৬২ ও ২৫ দশমিক ২৫ পয়েন্ট বৃদ্ধি পায়। এখানে সিএসই-৫০ ও শরিয়াহ সূচকের উন্নতি ঘটে যথাক্রমে ৫ দশমিক ৫১ ও ১ দশমিক ৮৭ পয়েন্ট।
সূচকের উন্নতির প্রভাব ছিল দিনের লেনদেনেও। দুই বাজারেই গতকাল লেনদেনের কমবেশি উন্নতি ঘটে। ঢাকা শেয়ারবাজার ৯৬১ কোটি টাকার লেনদেন নিষ্পত্তি করে গতকাল, যা আগের দিন অপেক্ষা ৯৫ কোটি টাকা বেশি। বুধবার ডিএসইর লেনদেন ছিল ৮৬৬ কোটি টাকা। চট্টগ্রামে ৫২ কোটি টাকা থেকে ৫৩ কোটিতে পৌঁছে লেনদেন।
এ দিকে ব্যবস্থাপনা পরিবর্তনের খবরে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত বস্ত্র খাতের সিঅ্যান্ডএ টেক্সটাইলের লেনদেন ও মূল্যবৃদ্ধিতে সৃষ্টি হয়েছে অস্বাভাবিকতা। উল্লম্ফন সৃষ্টি হয়েছে লেনদেন ও মূল্যবৃদ্ধিতে। বিগত এক সপ্তাহের বেশি সময় ধরে বরাবরই দুই পুঁজিবাজারের লেনদেনের শীর্ষ দশের তালিকায় থাকছে কোম্পানিটি। এ ছাড়া তিন দিন ধরে দুই পুঁজিবাজারের শীর্ষস্থান ধরে রাখছে সিএনএ টেক্সটাইল। সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র জানায়, কোম্পানির ব্যবস্থাপনায় বড় ধরনের পরিবর্তন আসছে। খুব শিগগিরই দেশের প্রতিষ্ঠিত একটি গ্রুপের ব্যবস্থাপনায় যাচ্ছে এটি।
কোম্পানির মালিকানায় পরিবর্তন আসছে এমন খবরে এরই মধ্যে সিঅ্যান্ডএ টেক্সটাইলের শেয়ারে ব্যাপক চাহিদা সৃষ্টি হয়েছে। কয়েক দিন ধরেই কোম্পানিটি লেনদেনের প্রথম সারিতে রয়েছে। এ ছাড়া শেষ পাঁচ কার্যদিবসের ব্যবধানে কোম্পানিটির শেয়ার দর বেড়েছে ১৮ শতাংশ। গতকাল কোম্পানিটির শেয়ারের মূল্যবৃদ্ধি না ঘটলেও লেনদেন ছাড়িয়ে যায় ৪ কোটি ২৮ লাখ। এর আগে গত মঙ্গল ও বুধবার যথাক্রমে ৩ কোটি ২৭ লাখ ও ২ কোটি ৫৩ লাখ শেয়ার লেনদেন হয় কোম্পানিটির। অথচ কোম্পানির শেয়ারপ্রতি আয় মোটেই সন্তোষজনক নয়। সর্বশেষ আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটি তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ) শেয়ারপ্রতি আয় করেছে দশমিক ১০ টাকা, যা আগের বছর একই সময়ে ছিল দশমিক ২৭ টাকা।
প্রসঙ্গত ২০১৫ সালে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হওয়া সিঅ্যান্ডএ টেক্সটাইলের পরিশোধিত মূলধনের পরিমাণ রয়েছে ২৩৯ কোটি ৩২ লাখ টাকার। গতকাল সকালে সূচকের মিশ্র প্রবণতায় লেনদেন শুরু করে দুই পুঁজিবাজার। ঢাকায় লেনদেন শুরুর এক ঘণ্টার বেশি সময় সূচকের তেমন পরিবর্তন ঘটেনি। দুপুর ১২টায় হঠাৎ ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা তৈরি হয়। বেলা সোয়া ১২টায় ডিএসই সূচকের উন্নতি ঘটে প্রায় ৩৫ পয়েন্ট। লেনদেনের এ পর্যায়ে বিক্রয়চাপের মুখে পড়ে বাজারটি। দিনের বাকি সময় এ চাপ অব্যাহত থাকলে বৃদ্ধি পাওয়া সূচকের একটি বড় অংশই হারিয়ে বসে ডিএসই। দিন শেষে ১১ দশমিক ৬২ পয়েন্ট উন্নতিতে ৫ হাজার ৯০১ দশমিক ৮০ পয়েন্টে স্থির হয় ডিএসই সূচক।
ব্যাংকিং খাতের মূল্যবৃদ্ধি বরাবরের মতো দুই বাজার সূচককে এগিয়ে রাখলেও অন্যান্য খাতগুলোতে অব্যাহত রয়েছে দরপতন। তবে দিনের মূল্যবৃদ্ধিতে গ্রামীণ ফোনেরও কিছুটা ভূমিকা ছিল বাজারের সর্বোচ্চ মূলধনের এ কোম্পানিটির উল্লেখযোগ্য মূল্যবৃদ্ধি ঘটে গতকাল। তবে একই সময় বেশ কয়েকটি খাতে শতভাগ কোম্পানির দরপতনের ঘটনা ঘটে। এদের মধ্যে ছিল সেবা, পাট ও কাগজ শিল্প। মিশ্র প্রবণতা দেখা গেছে রসায়ন, জ্বালানি, বীমা ও বিবিধ খাতে। ঢাকায় শেয়ারবাজারে লেনদেন হওয়া ৩৩২টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে ১১৫টির মূল্যবৃদ্ধির বিপরীতে দর হারায় ১৭৩টি। অপরিবর্তিত ছিল ৪৪টির দর। অপর দিকে চট্টগ্রাম শেয়ারবাজারে লেনদেন হওয়া ২৫৫টি সিকিউরিটিজের মধ্যে ৯০টির দাম বাড়লেও কমেছে ১৩৫টির। অপরিবর্তিত ছিল ৩০টির দর।

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.