সিলেট জালালাবাদ কলেজ সম্পর্কিত খবরের প্রতিবাদ

সিলেটের জালালাবাদ কলেজে গত ৭ আগস্ট সংঘটিত সন্ত্রাসী হামলার ঘটনার সাথে অধ্যক্ষ ও কয়েকজন শিক্ষককে জড়িয়ে পত্রিকায় প্রকাশিত খবরের প্রতিবাদ জানিয়েছেন কলেজ কর্তৃপক্ষ। জালালাবাদ কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর আবদুল বাকী চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক প্রতিবাদপত্রে বলা হয়েছে, সিলেটের সর্বপর্যায়ের শিক্ষাবিদ, শিক্ষানুরাগী, চিকিৎসক, আইনজীবী, সমাজসেবক ও প্রবাসীদের সম্মিলিত উদ্যোগে ২০০৫ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে জালালাবাদ কলেজ। প্রতিষ্ঠার পর সিলেট শিক্ষাবোর্ডে তৃতীয় স্থান অর্জনসহ বোর্ডে শীর্ষের ২০টি প্রতিষ্ঠানের তালিকায় প্রায় নিয়মিতভাবে ছিল জালালাবাদ কলেজের নাম। এ বছরে সিলেট শিক্ষাবোর্ডের এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফল প্রায় ৭২ শতাংশ পাস, যেখানে জালালাবাদ কলেজের পাসের হার হলো ৯০ শতাংশ। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে অত্র কলেজের ছাত্রছাত্রী ও শিক্ষক-কর্মচারীদের জন্য কলেজ ক্যাম্পাসে রাজনৈতিক কার্যক্রম সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ ছিল, যা আজো অব্যাহত আছে। গত ১০ আগস্ট সিলেটের বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত একটি সংবাদ আমাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে। যেখানে গত ৭ আগস্টের সন্ত্রাসী হামলার ঘটনার সাথে কলেজের অধ্যক্ষ ও কিছু শিক্ষককে সংশ্লিষ্ট করে সংবাদ পরিবেশন করা হয়েছে, যা আমাদের বিস্মিত ও মর্মাহত করেছে। ওই দিনের সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে কলেজ ক্যাম্পাসের বাইরে শিশু ক্লিনিকের সামনে বেলা সাড়ে ১২টায়, যার ভিডিও ফুটেজ বর্তমানে প্রশাসনের কাছে সংরক্ষিত আছে। আর জালালাবাদ কলেজ ক্যাম্পাসে দুর্বৃত্তদের হামলা ও লুটপাট হয়েছে রাত ৮ ঘটিকায়। আমরা দৃঢ়ভাবে বলছি, এহেন ঘৃণ্য সন্ত্রাসী কার্যক্রমের সাথে কলেজের অধ্যক্ষ, শিক্ষক কিংবা কোনো শিক্ষার্থীর ন্যূনতম সম্পৃক্ততা নেই। আমরা প্রকাশিত এ সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি, একই সাথে এ অনাকাক্সিক্ষত পরিস্থিতিতে সিলেটের সর্বপর্যায়ের রাজনীতিবিদ, সুশীলসমাজ, অভিভাবক ও প্রশাসন আমাদের পাশে এসে যে সহযোগিতা ও সহমর্মিতা প্রকাশ করেছেন এর জন্য আমরা তাদের প্রতি কৃতজ্ঞ।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.