বরযাত্রীবাহী বাস খাদে, নিহত ২

শরীয়তপুরের ডামুড্যায় একটি বরযাত্রীবাহী বাস খাদে পড়ে ২ জন যুবক নিহত এবং ৩৫ জন আহত হয়েছে। আহতদের ডামুড্যা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।  খবর পেয়ে ডামুড্যা থানা পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের ২টি ইউনিট বাসটি উদ্ধার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এ ঘটনায় পুরো এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

ডামুড্যা থানা ও আহত উজ্জল জানান, শরীয়তপুর জেলার ডামুড্যা উপজেলার ধানকাঠি ইউনিয়নের মডেরহাট মোল্যা কান্দি গ্রামের মৃত হাবিবুর রহমান হাওলাদারের ছেলে দেলোয়ার হাওলাদারের সঙ্গে  শরীয়তপুর সদর উপজেলার চিতলিয়া দড়িআলা এলাকার নওয়াব খার মেয়ে সুফিয়ার বিয়ের দিন ধার্য ছিল আজ মঙ্গলবার।

বিয়ে উপলক্ষে দুপুর সোয়া ১টার দিকে বরের বাড়ি ডামুড্যা উপজেলার ধানকাঠি ইউনিয়নের মডেরহাট মোল্যা কান্দি থেকে ৩টি বাস ও ১টি মাইক্রো দিয়ে বরযাত্রী নিয়ে কনের বাড়ি  যাওয়ার জন্য রওয়ানা দেয়। কিছুদুর যাওয়ার পর একই ইউনিয়নের ভাদরীকান্দি এলাকায় পৌছলে একটি অটোবাইক সাইট দিতে গিয়ে অন্তত ৪০/৪৫জন বরযাত্রী নিয়ে ঢাকা মেট্রো-জ ১৪-৭৭৫ গাড়িটি পাশের খাদে পড়ে যায়।

এ সময় বাসে থাকা একই এলাকার চরমালগাঁও গ্রামের মতিন বেপারীর ছেলে রুবেল বেপারী (১৮) ও ধানকাঠি গ্রামের সেলিম সিকদারের ছেলে তাজেল সিকদার (১৯) মারাত্মক আহত হন। স্থানীয় লোকজন আহতদের উদ্ধার করে ডামুড্যা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক দু’জনকেই মৃত ঘোষণা করে। এ সময় বরযাত্রী দিল মোহাম্মদ বেপারী, উজ্জল, মনির হোসেন, বাদল, সেলিম, আনোয়ার হোসেন, গাড়ী চালক মজিদ মাঝি ও হেলপারসহ অন্তত ৩৫জন বরযাত্রী মারাত্মক আহত হন।

শরীয়তপুরের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (গোসাইরহাট সার্কেল) খায়রুল হাসান বলেন, বরযাত্রী নিয়ে কনের বাড়ি যাওয়ার সময় বাস খাদে পড়ে দু্ইজন নিহত হয়েছে। আমরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে আহতদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করি এবং ডামুড্যা ও গোসাইরহাট উপজেলা ফায়ার সার্ভিসের লোকজন নিয়ে বাসটি উদ্ধারের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.