মুন্সীগঞ্জে মাজারে দুই নারীকে গলা কেটে হত্যা

মুন্সীগঞ্জ সংবাদদাতা

মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার ভিটিশিলমন্দির বারেক লেংটার মাজার থেকে আমেনা বেগম (৫৫) ও তাইজুলন নেছা (৪০) নামের দুই নারীর গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

পুলিশের ধারণা খুন দুটি যৌন ও জমিজমা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে হতে পারে। আজ ১৩ সেপ্টেম্বর সকাল দশটার দিকে সদর উপজেলার কাটাখালি-ভিটিশিলমন্দি এলাকার বারেক লেংটার মাজারে এ মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত আমেনা বেগম সদর উপজেলার চরকেওয়ার ইউনিয়নের ঝাপটা গ্রাম এবং তাইজুন নেছার আধারা ইউনিয়নের বকচর গ্রামের বাসিন্দা বলে জানা যায়।

মাজারের খাদেম মো. মাসুম শাহ্ জানান, সে সকাল সাড়ে সাতটার দিকে মাজার পরিস্কার করার জন্য আসে। মাজরের মূল দরজার সামনে আসলে ভিতর থেকে বাহিরের দিকে রক্ত প্রবাহিত হতে দেখা যায়। পরে তিনি দরজা খুলে ভিতরে ঢুকলে আমেনা ও তাইজুন নেছার মুখ একটি ওড়না দিয়ে ঢাকা অবস্থায় দেখেন। ওড়না সরালে দেখা যায় তাদের দু’জনের গলাকাটা ও মুখরক্তে মাখানো। এ অবস্থা দেখে তিনি সরাসরি এস.পি অফিসে নিজে গিয়ে খবর দেন।

তাইজুন নেছার ভাইয়ের ছেলে মো বরকতুল্লা বলেন, আমার ফুপু এ মাজারের একজন অন্যতম ভক্ত ছিলেন। আমার ফুপু ঢাকায় থাকেন। সেখান থেকেই আসতেন তিনি।

মুন্সীগঞ্জ জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মুস্তাফিজুর রহমান বলেন, মাজারের খাদেম আমাদের কে খবর দিলে সকাল দশটার দিকে ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ দুটি উদ্ধার করি। তিনি বলেন, খুন দুটি যৌন ও জমিজমা সংক্রান্ত কারণে হতে পারে। ঘটনাস্থল থেকে খুনের কিছু আলামত পাওয়া গেছে। তদন্তের স্বার্থে তা এখন বলা যাচ্ছে না।

মুন্সীগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসেন জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দু’জনের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠান। কে বা কারা এই খুনের সাথে জরিত তাদের কে খুঁজে বের করা হবে।

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.