রাশেক রহমানের পক্ষে সমর্থন চাইলেন সাকিব আল হাসান
রাশেক রহমানের পক্ষে সমর্থন চাইলেন সাকিব আল হাসান

রসিক নির্বাচন : সম্ভাব্য প্রার্থীর জন্য সমর্থন চাইলেন সাকিব

সরকার মাজহারুল মান্নান, রংপুর অফিস

রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সাবেক সদস্য রাশেক রহমানের পক্ষে সমর্থন চাইলেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।

আজ বুধবার দুপুরে রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে রাশেক রহমানের আয়োজনে ক্রিকেট কর্মশালা ও যুব সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এই সমর্থন চান। এদিকে ভিড় সামলাতে পুলিশ লাঠিচার্জ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ড. নাজমুল আহসান কলিম উল্লাহর সভাপতিত্বে যুবসমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী রাশেক রহমান, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষক তাবিউর রহমান প্রধান প্রমুখ।

এসময় সাকিব আল হাসান মঞ্চে উঠে বলেন, আপনারা আমাকে এতো ভালোবাসেন তা আমি জানতাম না। আমার জন্য দোয়া করবেন। এই অনুষ্ঠানের আয়োজন রাশেক রহমান ভালো মানুষ। তার সাথে থাকবেন। রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে তাকে ভোট দিবেন। তাহলে তিনি আপনাদের অনেক উন্নয়ন করবেন।

এসময় রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসিও রাশেক রহমানের পক্ষে সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোট চান।

এদিকে সকাল থেকেই সাকিবকে দেখতে ক্যাম্পাসে বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার কয়েক হাজার মানুষ অংশ নেন। পরে একটি প্রীতিম্যাচে অংশ নেন সাকিব আল হাসান। তবে অনুষ্ঠানের শেষের দিকে ভির নিয়ে চরম নৈরাজ্য তৈরি হয়। বিশৃংখলা ঠেকাতে পুলিশ লাঠিচার্জ শুরু করলে ক্যাম্পাসজুড়ে দৌড়াদৌড়ি শুরু হয়। ছেলে-মেয়ে উভয়েই উভয়ের ওপর হুমড়ি খেয়ে পড়তে থাকে। এতে অন্তত ২০ জন আহত হয়। এসময় বিক্ষুব্ধরা বেশকিছু চেয়ার ভাংচুর করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাওয়ায় নির্ধারিত ক্রিকেট কর্মশালাটি অনুষ্ঠিত হয়নি।

রংপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার- এ সার্কেল সাইফুর রহমান সাইফ জানান, ব্যাপক জনসমাগম হওয়ায় বিশৃংখলা তৈরি হলে পুলিশ লাঠিচার্জ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে বাধ্য হয়।

সম্ভাব্য প্রার্থীর তালিকায় যারা

২০১২ সালের ২০ ডিসেম্বরে নবগঠিত রংপুর সিটি কর্পোরেশনের প্রথম নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছিল। ওই নির্বাচনে মেয়র পদে সরফুদ্দিন আহমেদ ঝন্টু জয়লাভ করেন। ২০১৩ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি শপথ নেওয়ার পর কাউন্সিলররাসহ পরিষদের প্রথম সভা হয় একই বছরের ১৭ ফেব্রুয়ারি। সিটি কর্পোরেশন আইন অনুযায়ী, কোনো নির্বাচিত কর্পোরেশনের মেয়াদ হচ্ছে ওই কর্পোরেশন গঠনের পর প্রথম সভা থেকে পরবর্তী পাঁচ বছর। সে মতে রংপুর সিটির মেয়াদ পূর্ণ হবে ২০১৮ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি।

জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা রসিকের বর্তমান মেয়র সরফুদ্দীন আহমেদ ঝন্টু বিভিন্ন উন্নয়ন কাজের উদ্বোধনে গিয়ে ভোটারদের কাছে দোয়া চাইছেন। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা আওয়ামী লীগের বাতিঘর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সহায়তায় রংপুর সিটিতে সামগ্রিক উন্নয়নের যে ক্ষেত্র তৈরি হয়েছে তা যুগান্তকারী। আমার অভিজ্ঞতা, উন্নয়ন কাজ ও একজন ক্লিন ইমেজের প্রার্থী হিসেবে প্রধানমন্ত্রী আমাকে মনোনয়ন দিলে দ্বিতীয়বারের মতো আমি নির্বাচন করব।

এর বাইরে আসন্ন রসিক নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে রয়েছেন- জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট রেজাউল করিম রাজু, সাংগঠনিক সম্পাদক আনোয়ারুল ইসলাম, রংপুর চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি ও জেলা আওয়ামী লীগের কোষাধাক্ষ্য মো: আবুল কাশেম, রংপুর মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি ও মহানগর আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক মো. রেজাউল ইসলাম মিলন, মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি সাফিউর রহমান সফি ও সাধারণ সম্পাদক তুষার কান্তি মণ্ডল।

তবে সব কিছু ছড়িয়ে আলোচনায় দুই তরুণ। একজন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির কোষাধ্যক্ষ এইচ এন আশিকুর রহমানের ছেলে রাশেক রহমান এবং আরেকজন তরুণ সাংবাদিক রাকিবুল বাসার রাকিব। মাদকমুক্ত, তারুণ্যে উজ্জীবিত কর্মমুখর, প্রাণচাঞ্চল্যে ভরপুর রংপুর মহানগর গড়ার প্রত্যয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের তরুণ নেতা এবং টিভি ব্যক্তিত্ব রাশেক রহমান ইতোমধ্যে নেমেছেন প্রচারণায়।

গত ৮ থেকে ১০ এপ্রিল রাষ্ট্রীয় সংস্থা বাংলাদেশ ন্যাশনাল ক্যাডেট কোরের সন্ত্রাস ও উগ্রবাদবিরোধী র‌্যালি এবং কনসার্টের মাধ্যমে নিজের প্রচারণা চালিয়ে আলোচিত ও সমালোচিত হয়েছেন এই নেতা। রংপুর স্টেডিয়ামে ফোক সম্রাজ্ঞী মমতাজ বেগম এমপির মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগ নেতারা রাশেক রহমানকে আগামী দিনের মেয়র হিসেবে নির্বাচিত করতে নগরবাসীর প্রতি আহ্বান জানান।

রংপুর সিটি কর্পোরেশন

রংপুর সিটি কর্পোরেশন বাংলাদেশের রংপুরের স্থানীয় সরকার সংস্থা। ২০১২ খ্রিস্টাব্দের ২০ ডিসেম্বর তারিখে জাতীয় সংসদে স্থানীয় সরকার (সিটি কর্পোরেশন) বিল, ২০০৯-এর মাধ্যমে রংপুর পৌরসভাকে আনুষ্ঠানিকভাবে রংপুর সিটি কর্পোরেশনে উন্নীত করা হয়। সিটি করপোরেশনের আয়তন এখন ২০৩.৬৩ বর্গকিলোমিটার। এই আয়তনের মধ্যে রংপুর সদরের ১০টি, কাউনিয়া সারাই ও পীরগাছার কল্যাণীসহ ১২টি ইউনিয়ন মিলে ১১২টি মৌজাকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। এর মধ্যে ৭টি ইউনিয়ন পূর্ণাঙ্গ ও ৫টি আংশিক রয়েছে। তবে ক্যান্টনমেন্টকে সিটি করপোরেশনের আওতার বাইরে।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.