রোহিঙ্গাদের বহিষ্কার ও চাকমাদের নাগরিকত্ব দেবে ভারত

এনডিটিভি

নিরাপত্তার কারণ দেখিয়ে ৪০ হাজার রোহিঙ্গা মুসলিম শরণার্থীকে ভারত থেকে বহিষ্কার করার কথা ঘোষণা দেয়ার পর দেশটিতে থাকা এক লাখ চাকমা ও হাজং শরণার্থীকে নাগরিকত্ব দেয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়ার জন্য গতকাল বুধবার বৈঠক করার কথা ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।
গতকাল ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছে, অরুনাচল প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী পেমা খান্ডুর সাথে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং চাকমাদের নাগরিকত্ব দেয়া বিষয়ে আলোচনার জন্য বৈঠক আহ্বান করেন। এর আগে যদিও মুখ্যমন্ত্রী পেমা খান্ডু নাগরিকত্বের স্বীকৃতি রাজ্যের জনসংখ্যায় পরিবর্তন নিয়ে আসবে এমন কারণ দেখিয়ে শরণার্থীদের নাগরিকত্ব দেয়ার বিরোধিতা করেছিলেন। প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালে ভারতের উচ্চ আদালত চাকমাদের নাগরিকত্ব দেয়ার আদেশ দিয়ে এক রায় দেয়। ১৯৬০ সালে ধর্মীয় নিপীড়নের কারণে তৎকালীন পূর্ববাংলা বা বর্তমান বাংলাদেশ থেকে ুদ্র নৃগোষ্ঠী চাকমারা ভারতে পালিয়ে যায় এবং দেশটির বিভিন্ন রাজ্য যেমনÑ অরুনাচল, ত্রিপুরা, আসাম মিজোরাম, মেঘালয় এবং পশ্চিম বাংলায় ছড়িয়ে পড়ে। যদিও এদের অনেকের বাস বাংলাদেশের চট্টগ্রামের পাহাড়ি এলাকাগুলোতে এবং মিয়ানমারের পশ্চিমাংশে। ভারতীয় কর্তৃপরে তথ্য মতে, চাকমরা মূলত বৌদ্ধ এবং অন্য দিকে হাজংরা হিন্দু ধর্মাবলম্বী। উভয় গোষ্ঠীর লোকেরা সে সময় আসামের (বর্তমান নাম মিজোরাম) লুসাই পাহাড়ের ওপর দিয়ে ভারতে প্রবেশের পর অরুনাচল প্রদেশে চলে যায়।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.