১৬ সালে ২৩৪৭ সড়ক দুর্ঘটনায় ৫০০৩ জনের প্রাণহানী

নিজস্ব প্রতিবেদক

২০১৬ সালে সড়কে দুর্ঘটনা ঘটেছে ২৩৪৭ টি। আর এতে প্রাণ গেছে ৫ হাজার তিন জনের। আজ রিপোর্টার্স ইউনিটি মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য দিয়েছেন নিরাপদ সড়ক চাই’য়ের চেয়ারম্যান ইলিয়াস কাঞ্চন।
এ বছর ২২ অক্টোবর জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস ও মরহুমা জাহানারা কাঞ্চনের ২৩ তম মৃত্যুবার্ষিকী কর্মসূচি উপলক্ষ্যে এ সাংবাদিক সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সংগঠনের মহাসচিব শামীম আলম দ্বিপেন, যুগ্ম-মহাসচিব সাদেক হোসেন বাবু, সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম আজাদ হোসেন, প্রচার সম্পাদক মো. রিয়াজ উদ্দিন প্রমুখ।
সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য তুলে ধরে ইলিয়াস কাঞ্চন আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, সড়ক দুর্ঘটনা,নিহত ও আহতের সংখ্যা অনেক কমে এসেছে। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ২৪ বছর আগে দেশের জনসংখ্যা ছিল ১ কোটি,গাড়ী ও সড়কের সংখ্যা ছিল অনেক কম।

কিন্তু সে সময়ে সড়ক দুর্ঘটনা ও হতাহতের পরিমান ছিল অনেক বেশি। তখন সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতের সংখ্যা প্রতিবছর গড়ে দশ থেকে বারো হাজারের উপর। আহতের সংখ্যা ছিল গড়ে পচিশ থেকে ত্রিশ হাজার।

আজ দেশের জনসংখ্যা প্রায় ১৭কোটি। গাড়ির সংখ্যা ত্রিশ লাখ। সড়কের পরিধি অনেক বেড়েছে। সে তুলনায় সড়ক দুর্ঘটনা,নিহত ও আহতের সংখ্যা অনেক কমে এসেছে। তবে তিনি বলেন, সড়ক দুর্ঘটনারোধে দেশে সচেতনতা তৈরি হয়নি।

তিনি বলেন,এ পযর্ন্ত নিসচার নেয়া কার্যক্রমের পাশাপাশি ও সরকারের যথাযথ উদ্যোগ গ্রহণ এবং তা বাস্তবায়নের কারণে সকড় দূর্ঘটনা অনেকাংশ কমে এসেছে।
তিনি বলেন, সড়ক দুর্ঘটনারোধে দেশে সচেতনতা তৈরি হয়নি। তিনি বলেন, এ পযর্ন্ত নিসচার নেয়া কার্যক্রমের পাশাপাশি ও সরকারের যথাযথ উদ্যোগ গ্রহণ এবং তা বাস্তবায়নের কারণে সকড় দূর্ঘটনা অনেকাংশ কমে এসেছে।

তবে জাতিসংঘ ঘোষিত এসডিজি গোল অর্জনে ২০২০ সালে মধ্যে সড়ক দূর্ঘটনা অর্ধেকে নামিয়ে আসার জন্য যে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে, তা বাংলাদেশেও সম্ভব যদি বাকি সাড়ে ৩ বছর আমরা ব্যাপক সচেতনতা তৈরী করা যায়। এ জন্য সরকারী বেসরকারী এবং সকল সামাজিক সংগঠন বিশেষ করে রোড সেফটি বিষয়ে কাজ করছেন যে সকল সংগঠনকে এগিয়ে আসতে হবে। সাথে সাথে সরকারি ও আর্ন্তজাতিক বাজেট বৃদ্ধি করতে হবে।
তিনি জানান তার সংগঠনের পক্ষ থেকে দিবসটি উপলক্ষে গত প্রায় এক বছরে নিসচা জনসচেতনতা তৈরিতে যে সকল কায়ক্র, করেছে তার মধ্যে উল্লেখ যোগ্য কার্যক্রম হলো ঢাকাসহ দেশব্যাপী র‌্যালী মানববন্ধন, সেমিনার, চালক প্রশিক্ষণ যাত্রী পথচারী সমাবেশ জাতীয় সংঘ ঘোষিত রোড সেফটি সপ্তাহ পালন, গোল টেবিল বৈঠক ও বিভিন্ন প্রচার মাধ্যমে টক শো অংশ নেয়া হয় বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।

অপরদিকে এ বছর সংগঠনের পক্ষ থেকে নেয়া তাদের নেয়া মাসব্যাপী নিসচার কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে, জেলা উপজেলা ইউনিয়ন পর্যায়ে যে সকল শাখা রয়েছে তাদের কে অক্টোম্বর মাসের মধ্যে কমপক্ষে ৭ দিনের ৭ টি কর্মসূচি পালনের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে স্কুল প্রশিক্ষণ, বাস ট্রার্মিনাল সমূহে গাড়ি চালকদের সচেতনতা বৃদ্ধিমূলক প্রশিক্ষণ, মানববন্ধন, লিফলেট বিতরণ, র‌্যালিসহ অন্যান্য কর্মসূচি।

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.