নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ব্যাট করছেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি (ফাইল ফটো)
নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ব্যাট করছেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি (ফাইল ফটো)

ভারতকে হারানোর কৌশল আঁটছে নিউজিল্যান্ড

নয়া দিগন্ত অনলাইন

আসন্ন কঠিন ভারত সফর সম্পর্কে বেশ সচেতন নিউজিল্যান্ড কোচ মাইক হেসন। তিনি বলেন, ওয়ানডে ক্রিকেটে বিশ্বের শীর্ষ দল ভারতকে তাদের মাঠে চ্যালেঞ্জ দিতে হলে তার খেলোয়াড়দের গ্রাউন্ড শট খেলে রান নিতে হবে।

ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ের পাঁচ নম্বরে থাকা নিউজিল্যান্ড সিমিত ওভারের সিরিজে খেলতে চলতি মাসের শেষ সপ্তাহে ভারত সফর করবে। সফরে স্বাগতিক ভারতের বিপক্ষে তিন ওয়ানডে ও তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজ খেলবে কিউইরা।

মুম্বাইতে আগামী ২২ অক্টোবর প্রথম ওয়ানডেতে মুখোমুখি হবে দুই দল।

হেসন বলেন, সম্প্রতি নিজ মাঠে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৪-১ ব্যবধানে ওয়ানডে সিরিজ জিতে যোগ্যতার প্রমাণ দিয়েছেন বিরাট কোহলির নেতৃত্বাধীন ভারতীয় দল।

ভারতের উদ্দেশ্যে রওনা হওয়ার আগে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘লক্ষ্য করে দেখুন গত দুই তিন বছরে নিজ মাঠে তাদের রেকর্ড অসাধারণ।’

‘আপনি ভালো করেই জানেন সেখানে আপনাকে পারফর্ম করতে হবে অন্যথায় আপনাকে পরাজয়ের একটা শিক্ষা পেতে হবে। আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ হলো দ্রুত কন্ডিশনের সাথে মানিয়ে নেয়া।’

অধিনায়ক কেন উইলসন এবং ব্যাটিং তারকা মার্টিন গাপটিল ও রস টেইলরসহ নয় সদস্য নিয়ে ভারত রওনা হয়েছেন হেসন।
দলের বাকি ছয় সদস্য বেছে নেবেন বর্তমানে ভারত সফরে থাকা নিউজিল্যান্ড এ’ দল থেকে।

তিনি বলেন, ‘ ‘এ’ দলের সফর মানে হচ্ছে আমরা সেখানে এমন কিছু খেলোয়াড় পাচ্ছি যারা ইতোমধ্যেই সেখানকার কন্ডিশনের সাথে মানিয়ে নিয়েছে। সুতরাং তারা যখন দলে আসবে তখন সব কিছু তাদের অনুকূলে থাকবে।’

সফরকারীদের জন্য ভারত সব সময়ই চ্যালেঞ্জিং বলে মন্তব্য করেন হেসন।

তিনি বলেন, ‘অবশ্যই শিশির সেখানে একটা বিষয় এবং ভিন্ন ভিন্ন মাঠে সেখানকার কন্ডিশনও ভিন্ন। দলের সিনিয়র খেলোয়াড়দের অভিজ্ঞতার উপড় আমাদের নির্ভর করতে হবে।’

সিরিজ কে জিতবে, ভারত নাকি অস্ট্রেলিয়া?
অঘোষিত ফাইনালে আজ শুক্রবার মুখোমুখি হচ্ছে স্বাগতিক ভারত ও সফরকারী অস্ট্রেলিয়া। প্রথম দুই ম্যাচ শেষে তিন টি-২০ সিরিজে ১-১ সমতা। তাই ভারত-অস্ট্রেলিয়ার তৃতীয় ও শেষ টুয়েন্টি টুয়েন্টি ম্যাচটি রুপ অঘোষিত ফাইনালে। এ ম্যাচের বিজয়ী দল জিতে নিবে সিরিজ। তাই দু’দলেরই লক্ষ্য তৃতীয় ও শেষ টি-২০ জিতে সিরিজ নিজেদের করে নেয়া।

হায়দারাবাদে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ টি-২০ ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭টা ৩০ মিনিটে।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৪-১ ব্যবধানে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ জয় করে ভারত। এরপর জয় দিয়ে টি-২০ সিরিজও শুরু করেছিলো টিম ইন্ডিয়া। বৃষ্টি আইনে প্রথম ম্যাচটি ৯ উইকেটে জিতেছিলো বিরাট কোহলির দল। তবে পরের ম্যাচেই সিরিজে সমতা আনে অস্ট্রেলিয়া। বোলারদের দুর্দান্ত নৈপুণ্যে ২৭ বল হাতে রেখেই ৮ উইকেটে জিতে নেয় অসিরা। ফলে সিরিজে ১-১ সমতা ফিরে আসে। তাই হায়দারাবাদের শেষ টি-২০ দু’দলের জন্যই ফাইনাল।

শেষ ম্যাচে জয় ছাড়া অন্য কিছুই ভাবছেন না ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। শেষ টি-২০ নিয়ে কোহলি বলেন, ‘ওয়ানডে সিরিজে আমরা দারুণ খেলেছি এবং সিরিজও জিতেছি। টি-২০ সিরিজেও জয় দিয়ে শুরু হয়েছিলো। কিন্তু দ্বিতীয় ম্যাচে ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় ম্যাচটি হারতে হয়েছে আমাদের। আশা করছি, তৃতীয় ম্যাচে দল ভালো খেলবে এবং ম্যাচ জিততে পারবো। আমাদের প্রধান লক্ষ্য সিরিজ জয়। এজন্য ভালো খেলতে হবে। ব্যাটিং-বোলিং ও ফিল্ডিং ভালো করতে হবে। ম্যাচের শুরু থেকেই অস্ট্রেলিয়ার উপর প্রাধান্য বিস্তার করতে চাই এবং জয় দিয়ে সিরিজ শেষ করতে চাই আমরা।’

সিরিজ জয়ের কথা বললেন অস্ট্রেলিয়ার অস্থায়ী অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নারও। সেরা পারফরমেন্স দিয়ে তৃতীয় টি-২০ জিততে চান তিনি, ‘দ্বিতীয় ম্যাচে আমরা দারুণ খেলেছি। বিশেষভাবে বোলাররা দারুণ পারফরমেন্স করেছে। এভাবে খেলতে পারলে, তৃতীয় ম্যাচও জয় সম্ভব। সিরিজ জয়ের জন্যই আমরা মাঠে নামবো। নিজেদের সেরাটা ঢেলে দিতে চাই। সিরিজ জিতে সফর শেষ করতে পারলে, দারুণ হবে। অন্তত একটি ট্রফি নিয়ে দেশে ফিরতে পারবো। দলের সবাই ভালো কিছু করার জন্য মুখিয়ে আছে। গৌহাটি ম্যাচের পর সকলের আত্মবিশ্বাস অনেকখানি বেড়ে গেছে।’

এখন পর্যন্ত টি-২০ ম্যাচে ১৫বার মুখোমুখি হয়েছে ভারত ও অস্ট্রেলিয়া। এর মধ্যে ১০টি ম্যাচ জিতেছে ভারত এবং ৫টি জিতেছে অস্ট্রেলিয়া। পাশাপাশি পাঁচটি টি-২০ সিরিজের মধ্যে ভারত তিনটিতে এবং অসিরা ১টি জয় পায়। একটি সিরিজ হয় ড্র।

ভারত দল : বিরাট কোহলি (অধিনায়ক), রোহিত শর্মা (সহ-অধিনায়ক), শিখর ধাওয়ান, মনিষ পান্ডিয়া, মহেন্দ্র সিং ধোনি (উইকেটরক্ষক), কেদার যাদব, হার্ডিক পান্ডিয়া, জসপ্রিত বুমরাহ, ভুবেনশ্বর কুমার, কুলদীপ যাদব, যুজবেন্দা চাহাল, লোকেশ রাহুল, দীনেশ কার্তিক (উইকেটরক্ষক), অক্ষর প্যাটেল ও আশিষ নেহরা।

অস্ট্রেলিয়া দল : ডেভিড ওয়ার্নার (অধিনায়ক), জেসন বেহরেনড্রফ, ড্যান ক্রিস্টিয়ান, নাথান কলটার-নাইল, অ্যারন ফিঞ্চ, ট্রাভিস হেড, মইসেস হেনরিকস, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, কেন রিচার্ডসন ও এডাম জাম্পা, টিম পাইন (উইকেটরক্ষক), মার্কাস স্টোয়িনিস ও এন্ড্রু টাই।

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.