সৌদি প্রিন্সদের বিচারে নিরপেক্ষ থাকার প্রতিশ্রুতি সরকারের

রয়টার্স

দুর্নীতির অভিযোগে আটক প্রিন্সসহ উচ্চপর্যায়ের কর্মকর্তা আর ধনকুবেরদের আইনি সুরক্ষা নিশ্চিতের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে সৌদি আরব। সোমবার জাতিসঙ্ঘে নিয়োজিত সৌদি দূত আবদুল্লাহ আল-মোয়াল্লিম এ কথা জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, যথাযথ বিচার প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়েই তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
সৌদি রাজপরিবারের অভ্যন্তরীণ সূত্রকে উদ্ধৃত করে মিডল ইস্ট আই-এর সাম্প্রতিক এক খবরে আটককৃতদের একাংশের ওপর শারীরিক নিপীড়নের অভিযোগ তোলা হয়। এই অভিযোগের মুখে সৌদি আরব তাদের জন্য আইনি সুরক্ষা নিশ্চিতের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।
সৌদি আরবে সাম্প্রতিক দুর্নীতিবিরোধী অভিযানে রাজপরিবার থেকে ২০১ জনকে আটকের কথা জানানো হলেও রাজ দরবারের অভ্যন্তরীণ সূত্রগুলো জানায়, আটককৃতদের প্রকৃত সংখ্যা পাঁচ শতাধিক। এদের মধ্যে কয়েকজন উচ্চপর্যায়ের ব্যক্তির ওপর বেধড়ক পিটুনি ও নির্যাতন চালানোর অভিযোগ ওঠে। তবে জাতিসঙ্ঘের সৌদি দূত দাবি করেছেন, নিরপেক্ষ বিচারকই আটককৃতদের বিরুদ্ধে শুনানি করবেন।
সোমবার নিউইয়র্কে জাতিসঙ্ঘের সদর দফতরে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ নিয়ে জানতে চাইলে আবদুল্লাহ আল মোয়াল্লিম বলেন, ‘আমি আপনাদের আশ্বস্ত করতে পারি যে যারাই আটক হচ্ছেন তাদের যে কেউই স্বাভাবিক বিচার প্রক্রিয়ায় বিচার পাওয়ার সুযোগ পাবেন।’ তবে কতজনকে আটক করা হয়েছে এ নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি তা প্রকাশ করতে অস্বীকৃতি জানান। বলেন, ‘আপনাদের জানানোর মতো কোনো সংখ্যা আমার জানা নেই। সঠিক সময় এলে নিরাপত্তা কর্তৃপক্ষ তা ঘোষণা করবে।’
মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সৌদি আরবের দুর্নীতিবিরোধী অভিযানকে সমর্থন জানিয়েছেন। তার দাবি, যারা আটক হয়েছে তারা বছরের পর বছর ধরে দেশকে শুষে খাচ্ছিল। অবশ্য, মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর এ ব্যাপারে ‘সুষ্ঠু ও স্বচ্ছ’ বিচারপ্রক্রিয়া চালানোর জন্য রিয়াদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস ওয়াচও আটকের আইনি ভিত্তি ও অভিযোগের প্রমাণ হাজিরের মধ্য দিয়ে যথাযথ বিচারপ্রক্রিয়া অনুসরণে সৌদি আরবকে তাগিদ দিয়েছিল। সব মিলে আটককৃতদের বিরুদ্ধে সুষ্ঠু বিচারপ্রক্রিয়া অনুসরণ করা হবে কি না তা নিয়ে সংশয় সৃষ্টি হয়েছে।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.