অভিযুক্ত হজ এজেন্সিকে ছাড় দেয়া হবে না : ধর্মসচিব

নিজস্ব প্রতিবেদক

বিগত হজ মৌসুমে যেসব এজেন্সি অনিয়ম ও দুর্নীতি করেছে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না বলে জানিয়েছেন ধর্ম সচিব মো. আনিছুর রহমান।

তিনি বলেন, ২২৮ হজ এজেন্সিকে চিহ্নিত করা হয়েছে। অপরাধের গুরুত্ব বিবেচনায় এসব হজ এজেন্সির লাইসেন্স বাতিল, জামানত বাতিল ও জরিমানাসহ নানা শাস্তি প্রদান করা হবে। অভিযুক্ত এসব এজেন্সির বিরুদ্ধে ১৫ জানুয়ারির মধ্যে তদন্ত শেষে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে। এছাড়া ২৫ জানুয়ারির মধ্যে আগামী ২০১৮ সালের জন্য হজ কার্যক্রমে অংশগ্রহণকারী এজেন্সির তালিকা প্রকাশ করা হবে বলেও তিনি জানান।

আজ সোমবার দুপুরে সচিবালয়ে ধর্ম সচিবের দফতরে ধর্ম মন্ত্রণালয় ও ধর্মভিত্তিক দলগুলো নিয়ে কাজ করা রিপোর্টারদের সংগঠন রিলিজিয়াস রিপোর্টার্স ফোরামের (আরআরএফ) নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময়কালে তিনি একথা বলেন।

ধর্ম সচিব বলেন, অভিযুক্ত ২২৮টি হজ এজেন্সির মধ্যে ৪৫ টি এজেন্সির বিরুদ্ধে সরাসরি সৌদি সরকার শোকজ করেছে। অপরাধ প্রমাণিত হলে সৌদি সরকারই তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেবে।

আনিছুর রহমান আরো বলেন, সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী এখন পর্যন্ত এক লাখ ৮৩ হাজার ৭৮৭ জন বেসরকারি কোঠায় ও চার হাজার ৮৭৬ জন সরকারি কোঠায় প্রাক নিবন্ধন করেছেন। তাদের মধ্যে ২০১৮ সালে এক লাখ ৩০ হাজার ব্যক্তি হজ করতে পারবেন। বাকীরা ২০১৯ সালের জন্য অপেক্ষমাণ থাকবেন।

তিনি বলেন, আগামী ১৪ জানুয়ারি সৌদি আরবের সাথে হজ চুক্তি সম্পন্ন হবে। এরপর হজ প্যাকেজ ঘোষণা করা হবে।
মতবিনিময়কালে আরআরএফ-এর সহ-সভাপতি মিয়া হোসেন, সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল্লাহ বাদল, যুগ্ম সম্পাদক মোস্তাক আহমেদ, সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ নঈমুদ্দিন, অর্থ সম্পাদক রকিবুল হক, দফতর সম্পাদক কাওসার আজম, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক কামরুজ্জামান বাবলু, নির্বাহী সদস্য শামসুল ইসলাম, মহসিনুল করীম লেবু, মনিরুজ্জামান উজ্জল, রফিক উল্লাহ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিবের পিএস কামরুল হুদা ও সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.