বাংলাদেশ চীনের ওয়ান বেল্ট-ওয়ান রোড নীতি সমর্থন করে তথ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, ‘বাংলাদেশ ‘এক চীন নীতি’ সমর্থন করে, চীনের প্রেসিডেন্ট যে ‘ওয়ান বেল্ট-ওয়ান রোড’ নীতি গ্রহণ করেছেন, সেটিও সমর্থন করে।
গতকাল সকালে প্যানপ্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলের চিত্রা হলে বাংলাদেশ সফররত চীনা কমিউনিস্ট পার্টির প্রতিনিধিদলের সাথে বাংলাদেশের বাম রাজনৈতিক দলের বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি এ কথা বলেন।
তিনি বলেন, ‘আমরা মনে করি, উন্নয়নশীল দেশের জন্য সমাজতান্ত্রিক পথ অনুসরণ করা মঙ্গলজনক, কারণ তা উন্নয়নও দেবে বৈষম্যও কমাবে। সেইসাথে সামরিকীকরণ, আধিপত্যবাদ ও বহিঃহস্তপে থেকে মুক্ত বিশ^ায়নের সমর্থক বাংলাদেশ।’
বৈঠকে বাম রাজনৈতিক দলের মধ্যে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ, সিপিবি এবং সাম্যবাদী দলের শীর্ষ নেতারা উপস্থিত ছিলেন।
জাসদ সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী বলেন, শি জিংপিং ফের চীনা কমিউনিস্ট পার্টির জেনারেল সেক্রেটারি এবং চীনের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়ে যে নীতিমালা গ্রহণ করেছেন, বাংলাদেশের জনগণ ও রাজনীতিবিদদের জানানোর জন্য চীনা কমিউনিস্ট পার্টির প্রতিনিধিরা বাংলাদেশে এসেছেন। উন্নয়নকামী বাংলাদেশের সাথে বন্ধুপ্রতিম দেশ চীনের এ ঘনিষ্ঠ মতবিনিময় উভয় দেশের জন্য মঙ্গলজনক। এর পাশাপাশি তিনি বলেন, উন্নয়নশীল দেশের জন্য সমাজতান্ত্রিক পথ অনুসরণ করা মঙ্গলজনক, কারণ তা উন্নয়নও দেবে বৈষম্যও কমাবে।
ইনু বৈঠকে রোহিঙ্গা বিষয়টি উত্থাপন করেন। সে প্রসঙ্গে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা বলেছি, রোহিঙ্গাদের নিয়ে যে সমস্যা রয়েছে, তার শান্তিপূর্ণ সমাধানে বাংলাদেশ তার বন্ধুপ্রতিম দেশ চীনের সক্রিয় সমর্থন ও জোরালো ভূমিকা আশা করে। ’
এর আগে বৈঠকে চীনা দলনেতা ওয়াং ইয়াজুন ফের নির্বাচিত তাদের পার্টির জেনারেল সেক্রেটারি এবং চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিং পিংয়ের প থেকে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি শুভেচ্ছা ব্যক্ত করেন। চীনের নতুন নীতিমালা ব্যাখ্যাকালে তিনি বলেন, চীন-বাংলাদেশের যৌথ উদ্যোগগুলো বাস্তবায়নে চীনের প থেকে দ্রুত অর্থ ছাড় করা হবে।
চীনা কমিউনিস্ট পার্টির আন্তর্জাতিক বিষয়ক অ্যাসিস্ট্যান্ট মিনিস্টার ওয়াং ইয়াজুনের নেতৃত্বে বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূত মা মিংচিংসহ ৭ সদস্যবিশিষ্ট দলের সাথে বৈঠকে বাম রাজনৈতিক দলগুলোর প্রতিনিধিদের পে নেতৃত্ব দেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া, সিপিবি সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম, জাসদের সাধারণ সম্পাদক শিরিন আখতার এমপি, জাসদ নেতা ড. আনোয়ার হোসেন প্রমুখ। বৈঠকের পর তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুর হাতে চীনা কমিউনিস্ট পার্টির শুভেচ্ছাস্মারক তুলে দেন সফররত দলনেতা ও পার্টির আন্তর্জাতিক বিষয়ক অ্যাসিস্ট্যান্ট মিনিস্টার ওয়াং ইয়াজুন।

 

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.