তালায় যৌতুকের জন্য গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যা

সাতীরা সংবাদদাতা

সাতীরার তালায় যৌতুকের দাবিতে লক্ষ্মীরানী দাস নামে এক গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার তেরছি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকে গৃহবধূর স্বামীসহ তার পরিবারের সদস্যরা পলাতক রয়েছে।
নিহত গৃহবধূ লক্ষ্মীরানী দাস (২৫) সাতীরার তালা উপজেলার তেরছি গ্রামের বিপুল চন্দ্র দাসের স্ত্রী ও যশোরের কেশবপুর উপজেলার অসীম কুমার দাসের মেয়ে।
নিহত লক্ষ্মীরানী দাসের দাদু গোরা চাঁদ বসু জানান, যৌতুকের দাবিতে বিপুল প্রায়ই তার নাতনীকে নির্যাতন করত। এরই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার রাতে বিপুল, তার বড় ভাই ও বড় ভাইয়ের স্ত্রীসহ পরিবারের অন্য সদস্যরা লক্ষ্মীরানী দাসকে বেঁধে পেটায়। একপর্যায়ে সে মারা গেলে তারা প্রচার করে যে, লক্ষ্মীরানী গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছে। লোকমুখে খবর পেয়ে রাত সাড়ে ১২টায় গিয়ে আমরা দেখি লক্ষ্মীরানীকে বারান্দায় শুইয়ে রাখা হয়েছে। তার শরীরের হাঁটু, গলা, মাথা, নাকসহ বিভিন্ন স্থানে পিটিয়ে থেঁতলানো দাগ ও রক্ত ছড়িয়ে আছে। পরে থানায় খবর দিলে বৃহস্পতিবার সকালে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে সাতীরা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।
তালা থানার সেকেন্ড অফিসার এস আই রফিকুল ইসলাম জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে গৃহবধূ লীরানীকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.