গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন বিধ্বংসী লিভারপুল বিরল কৃতিত্ব রোনালদোর

ক্রীড়া প্রতিবেদক

গোল উৎসবেই চ্যাম্পিয়ন্স লিগের নকআউটের প্রতিনিধিত্বের অপেক্ষার অবসান অল রেড খ্যাত লিভারপুলের। ব্রাজিলীয় মিডফিল্ডার কতিনহোর হ্যাটট্রিক নেতৃত্ব দেয় ২০০৮-০৯ মওসুমের প্রথমবারের মতো ইংল্যান্ডের দলটির দ্বিতীয় পর্বের অংশগ্রহণ। একই দিনে বিরল কৃতিত্ব রচনায় চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ব্যক্তিগত সাফল্যের শিখরে পা রাখেন রিয়াল মাদ্রিদের সুপারস্টার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। টুর্নামেন্টের ইতিহাসের প্রথম ফুটবলার হিসেবে গ্রুপ পর্বের ছয় ম্যাচেই গোল করার রেকর্ড গড়েছেন পর্তুগালের অধিনায়ক।
বুধবার রুদ্ধশ্বাস নাটকীয়তায় সমাপ্তি হয়েছে চাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ পর্বের দ্বৈরথ। দুর্দান্ত ফর্মে থাকা ম্যানসিটিকে হারিয়ে সবাইকে হতবাক করেছে শাখতার ডনেস্ক। ইউক্রেনের দলটির মোকাবেলায় অঘটন হজমে সফরে একটানা জয়ের ১১ খেলায় থেমেছে ইংলিশ দলটির। হোম অ্যান্ড অ্যাওয়ে ম্যাচ মিলিয়ে গত এপ্রিলের পর ম্যানসিটির প্রথম পরাজয়। তবে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হিসেবে নকআউটের আগেই নিশ্চিত হওয়ার ইউক্রেন সফরকে গুরুত্ব কমই দেন প্রিমিয়ার লিগের শীর্ষ দলটির কোচ পেপ গার্দিওলা। আসছে রোববারের ম্যানচেস্টার ডার্বির চ্যালেঞ্জ বিবেচনায় নিয়মিত একাদশের ফুটবলারদের বিশ্রাম দেন গ্রুপ পর্বের শেষ খেলায়। রিজার্ভ বেঞ্চের ফুটবলার সমন্বিত ম্যানসিটিকে ২-১ গোলে হারিয়ে ‘এফ’ গ্রুপের দ্বিতীয় দল হিসেবে নকআউটে উঠেছে শাখতার ডনেস্ক। স্বাগতিকদের স্মরণীয় সাফল্যের দিনে গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায়ের লজ্জা হজমে শিরোনামে ইতালির জায়ান্ট নাপোলি। প্রথমে লিড নিয়েও তারা জিততে পারেনি ফেয়ুনর্দের মোকাবেলায়। ইনজুরি টাইমে গোল হজমে ২-১ এ হারে বাধ্য হয় নাপোলি। হোম ভেনুতে ফেয়ুনর্দের সান্ত্বনার জয়ের দিনে এফ সি পোর্তোও নিশ্চিত করেছে গ্রুপ পর্ব থেকে গতবারের অন্যতম সেমিফাইনালিস্ট মোনাকোর বিদায়। পর্তুগালে অনুষ্ঠিত ‘জি’ গ্রুপের ম্যাচে সফরকারী মোনাকোকে ৫-২ গোলে উড়িয়ে দেয় স্বাগতিক পোর্তো। প্রাথমিক রাউন্ডের শেষ খেলায় দুর্দান্ত জয়ে রানার্সআপ হিসেবে নকআউটের প্রতিনিধিত্বের উৎসব করেছে পর্তুগালের দলটির। ৬ ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট অর্জনে ‘জি’ গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন তুরস্কের কাব বেসিকতাস।
স্পেন সফরে গ্রুপ পর্বের পঞ্চম ম্যাচে সেভিয়ার বিপক্ষে ৩ গোলে লিড নিয়েও জয়োৎসবের ব্যর্থতায় নকআউট নিশ্চিতের সুবর্ণ সুযোগ হাতছাড়া লিভারপুলের। মাঠে তাদের হতাশাজনক ফুটবল ভক্তদের দ্বিতীয় রাউন্ডে ওঠার উৎসবের অপেক্ষা বাড়িয়ে দেয়। বাড়তি টেনশন সাথে করে তারা অ্যান্ডফিল্ডে পা রাখেন। তবে ভক্তদের স্নায়ুচাপে রেখে খেলার ঝুঁকিতে রাজি ছিলেন অল রেড ফুটবলাররা। ফলে নিয়মিত বিরতিতেই গোল উৎসবও করেন। তাদের মোকাবেলায় ৭-১ গোলে বিধ্বস্ত স্পার্টাক মস্কো। গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন হিসেবে নকআউটে লিভারপুল। তাদের সংগ্রহ ১২ পয়েন্ট। সেভিয়ার দ্বিতীয় রাউন্ড নিশ্চিত হয় ‘জি’ গ্রুপের ২ নম্বর দল হিসেবে।
‘এইচ’ গ্রুপের শেষ ম্যাচে রোনালদোর স্মরণীয় অর্জনে জয় রিয়াল মাদ্রিদের। বার্নাবুতে স্বাগতিকদের কাছে ৩-২ গোলে হেরেছে বরুসিয়া ডর্টমুন্ড। প্রথম ফুটবলার হিসেবে রোনালদোর গ্রুপ পর্বের ৬ খেলায় গোলের কৃতিত্ব সত্ত্বেও রানার্সআপ রিয়াল মাদ্রিদ। বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের টপকে টটেনহাম ‘এইচ’ গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন হিসেবে উঠেছে দ্বিতীয় রাউন্ডে। হোম ভেনুতে গ্রুপ পর্বের সমাপ্তির খেলায় তারা ৩-০ গোলে হারিয়ে দেয় অ্যাপোয়েল নিকোশিয়াকে।
নকআউটের ১৬ দল : রিয়াল মাদ্রিদ, বার্সেলোনা, প্যারিস সেন্ট জার্মেই, ম্যানচেস্টার সিটি, ম্যানইউ, বায়ার্ন মিউনিখ, লিভারপুল, চেলসি, সেভিয়া, বেসিকতাস, এফ সি পোর্তো, টটেনহাম, জুভেন্টাস, এফ সি বাসেল, শাখতার ডনেস্ক ও এ এস রোমা।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.