ঠাকুরগাঁওয়ে ব্রিজ ভেঙে ১০ ইউনিয়নের মানুষের যোগাযোগ বন্ধ

ঠাকুরগাঁও সংবাদদাতা

ঠাকুরগাঁওয়ের উত্তর পাশের ঝুঁকিপূর্ণ সেনুয়া বেইলি ব্রিজ মালবাহী ট্রাকসহ ভেঙে পড়ে প্রায় ১০টি ইউনিয়নের কয়েক লাখ মানুষের যোগাযোগ সম্পূর্ণ বন্ধ হয়ে গেছে। যোগাযোগ বন্ধ থাকায় চরম বিপদে পড়েছে ওই সব এলাকার লোকজন।
ব্রিজটি ভেঙে যাওয়ার সময় ব্রিজের ওপরে থাকা বরুণাগাঁও এলাকার আইনুল হক আহত হন। তার হাত ভেঙে যায়। গত শনিবার সন্ধ্যার পর একটি কয়লা বোঝাই ট্রাক ঝুঁকিপূর্ণ সেনুয়া বেইলি ব্রিজের ওপর উঠতেই ব্রিজটির উত্তর পাশের অংশ ভেঙে ট্রাক উল্টে ব্রিজের একাংশসহ মাটিতে ঝুলে পড়ে।
প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, ঠাকুরগাঁও শহরের বরুণাগাঁও এলাকায় সেনুয়া বেইলি ব্রিজটি অবস্থিত। দীর্ঘ দিন আগেই ব্রিজটি ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষণা করে এলজিইডি কর্তৃপক্ষ। শহরের ঠিকাদার রামবাবুর ভাঁটায় কয়লা নেয়ার সময় ১০ চাকার ট্রাকটি অতিরিক্ত ওজনের কারণে ব্রিজ ভেঙে পড়ে।
ফায়ার সার্ভিস সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার সন্ধ্যায় সেনুয়া বেইলি ব্রিজ দিয়ে একটি কয়লা বোঝাই ট্রাক ফাঁড়াবাড়ী এলাকার দিকে যাওয়ার চেষ্টা করলে ব্রিজের উত্তর পাশের অংশ ট্রাকসহ ভেঙে পড়ে। ব্রিজটি পারাপারের সময় একজন পথচারীও আহত হন।
ঠাকুরগাঁও এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী কান্তেশ্বর বর্মণ জানান, সেনুয়া বেইলি ব্রিজটি অনেক দিন আগেই ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষণা করা হয়েছে। তবুও ওই ব্রিজ দিয়ে মানুষ ভারী যানবাহন নিয়ে চলাচল করছিল। ফলে ব্রিজটি ভেঙে পড়ে। ব্রিজ মেরামতের জন্য ঊর্ধŸতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে। দ্রুত ব্রিজ মেরামত করে যান চলাচলের জন্য স্বাভাবিক করা হবে বলে আশা প্রকাশ করেন।
ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসক আব্দুল আওয়াল বলেন, আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে দেখেছি। ব্রিজটি ভেঙে যাওয়ায় অনেক মানুষের অসুবিধা হচ্ছে। ব্রিজটি মেরামতের জন্য দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.