কাউন্সিলর প্রার্থীর নির্বাচনী অফিসে আগুন
কাউন্সিলর প্রার্থীর নির্বাচনী অফিসে আগুন

কাউন্সিলর প্রার্থীর নির্বাচনী অফিসে আগুন

সরকার মাজহারুল মান্নান রংপুর অফিস

রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে, ততই বিভিন্ন ধরণের সহিংস আচরণ বাড়ছে। শনিবার ভোররাতে নির্বাচনে ১৪ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী আওয়ামী লীগ সভাপতি আবেদ আলী সরকারের ট্রাক্টর প্রতীকের পূর্ব বড়বাড়ী ডারার পাড় এলাকার নির্বাচনী অফিসে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা । এতে ওই অফিসের চেয়ার টেবিল, সামিয়ানা, পোষ্টার আগুনে পুড়ে যায়। 

রিটার্নিং কর্মকর্তার অফিস, পুলিশ ও কাউন্সিলর প্রার্থী সূত্রে জানা গেছে, ১৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং কাউন্সিলর প্রার্থী ট্রাক্টর প্রতীকের আবেদ আলী সরকার ডারার পাড় এলাকায় নির্বাচনী অফিসের শনিবার ভোররাতে দুর্বৃত্তরা আগুন দেয়। এতে ওই অফিসের সকল আসবাবপত্র ও প্রচারণাপত্র সামিয়ানা ছাই হয়ে যায়। খবর পেয়ে এ কোতয়ালী থানার এসআই মামুন অর রশিদের নেতৃত্বে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আলমত জব্দ করে।

আবেদ আলীর প্রধান নির্বাচনী এজেন্ট মকবুল হোসেন জানান, শুক্রবার গভীর রাত পর্যন্ত আমরা ট্রাক্টর প্রতীকের প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে বাড়িতে যাই। ভোরবেলা খবর পাই, সব কিছু পুড়ে দেয়া হয়েছে। বিষয়টি জানিয়ে আমরা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও কোতয়ালী থানার ওসিকে লিখিত অভিযোগ দিয়েছি।
এ ঘটনার জেরে ওই এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

স্থানীয় শফিকুল ইসলাম জানান, ওই নির্বাচনী অফিসের উপরে ১১ হাজার ভোল্টটেজের বিদ্যুতের তার ছিল। আনুমানিক ভোর ৪টার দিকে দেখি অফিসে আগুন জ্বলছে। এলাকাবাসীর সহযোগিতায় দ্রুত সময়ে আগুন নিভিয়ে ফেলা হয়।

কাউন্সিলর প্রার্থী আবেদ আলী সরকার জানান, শনিবার ভোর রাতে আমার ডারার পাড় এলাকার নির্বাচনী অফিসে কে বা কাহারা আগুন লাগিয়ে দেয়। ঘটনাটি পূর্ব পরিকল্পিত। তিনি বলেন, আমার নির্বাচনী প্রতিপক্ষ আমার জনপ্রিয়তায় হতাশ হয়ে এই কাজ করেছে। যাতে তে কর্মী সর্মথকরা হতাশ হয়। আমি দুর্বৃত্তদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানাচ্ছি।
রংপুরের আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা ও রির্টানিং অফিসার সুভাষ চন্দ্র সরকার জানান, পুলিশ সুপার ও কোতয়ালী থানার ওসিকে বিষয়টি জানানো হয়েছে।
এ ব্যাপারে কোতয়ালী থানার অফিসার ইনচার্জ বাবুল মিয়া জানান, মোবাইলে বিষয়টি জানার পরেই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি।

 

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.